,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

অতিথি শিক্ষক দিয়ে চলছে শতাধিক শিক্ষার্থীর পাঠদান!

aআবদুল মান্নান, মানিকছড়ি (খাগড়াছড়ি) সংবাদদাতা, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ শিক্ষক সংকটে উপজেলার তিনটহরী ইউনিয়নের মংশে কারবারি পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষা কার্যক্রম। পাড়ার অতিথি শিক্ষক দ্বারা জোড়া-তালি দিয়ে চলছে শতাধিক শিক্ষার্থীর পাঠদান। একজন মাত্র শিক্ষক কর্মরত থাকলেও ব্যক্তিগত ছুটি কিংবা অফিসের কাজে উপজেলা সদরে আসলে বন্ধ হয়ে যায় শিক্ষার্থীদের পাঠদান কার্যক্রম।

সরেজমিনে জানা গেছে, উপজেলার তিনটহরী ইউনিয়নের দুর্গম ও অবহেলিত জনপদ মংশী কার্বারী পাড়ায় শিক্ষা আলো পৌঁছে দিতে ১৯৬৭ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয় মংশী কারবারি পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। প্রতিষ্ঠার চার যুগ পেরিয়ে গেলেও নানা সংকট মাথায় নিয়ে ঠাই দাঁড়িয়ে আছে বিদ্যালয়টি। শিক্ষক সংকট, আসবাবপত্রের অপ্রতুলতা, অনুন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ নান সংকট রয়েছে প্রতিষ্ঠানটিতে। সংকটের চিত্র তুলে ধরতে সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানে গেলে দেখা যায় কর্মরত একমাত্র শিক্ষক কুল দীপ চাকমা ছুটিতে আছেন। দু’জন অতিথি শিক্ষক জোড়া-তালি দিয়ে চালিয়ে নিচ্ছেন পাঠদান। তবে বর্তমানে শিশু শ্রেনীতে ৯ জন, ১ম শ্রেনীতে ৩৫জন, ২য় শ্রেনীতে ২০জন, ৩য় শ্রেনীতে ১৬ জন, ৪র্থ শ্রেনীতে ১৯জন এবং ৫ম শ্রেনীতে ১১জন শিক্ষার্থী অধ্যায়নরত আছেন। ইতোমধ্যে নতুন ভবন নির্মাণ কাজ শেষ হলেও প্রয়োজনীয় আসববাবপত্র আনার পর ফেরত নেয়া হয়েছে।
বিদ্যালয়ে থাকা অতিথি শিক্ষক হ্লাচাইউ মারমা জানান,কোমলমতি শিক্ষার্থীদের পাঠদান যথাযথ ভাবে চালিয়ে নেয়ার জন্য গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে নাম মাত্র সম্মানীতে আমরা দু’জন কাজ করছি।
বিদ্যালয়ের সভাপতি অংসা মারমা জানান, নানা প্রতিকুলতার মধ্যেও এই প্রতিষ্ঠানের পাশের হার শতভাগ। অবহেলিত এই জনপদের সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের সু-শিক্ষা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে সরকার এমনটি আমাদের প্রত্যাশা।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শুভাশীষ বড়–য়া বলেন, শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু না হওয়ায় উপজেলায় শিক্ষক সংকট রয়েছে। কর্মরত শিক্ষকদের আন্তরিক সহযোগীতার মাধ্যমে প্রত্যাশিত শিক্ষা সুবিধা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

মতামত...