,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতন গ্রেপ্তার ২

নিজস্ব প্রতিবেদক, ১জুলাই, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম::জমি নিয়ে বিরোধের জেরে অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার রাজগাতী ইউনিয়নের দক্ষিণ কয়রাটি গ্রামে ঈদের পরদিন মঙ্গলবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় স্থানীয় আবুল কাশেম ও রবিউলকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার দিনই আটজনকে আসামি করে নান্দাইল মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন নির্যাতিতার স্বামী।

মামলার আসামিরা হলো— ঝরনা আক্তার, পারুল আক্তার, আইরিন আক্তার, আবুল কাশেম, দ্বীন ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, রবিউল ও বিল্লাল হোসেন। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ওই গ্রামের নির্যাতিতা কল্পনা আক্তারের স্বামী ইজিবাইক চালক সিরাজুল ইসলাম আড়াই বছর আগে প্রতিবেশী আবু বক্করের তিন ছেলে রবিউল আওয়াল, সাইফুল ইসলাম ও দ্বীন ইসলামের কাছে পাঁচ শতক জমি বিক্রি বাবদ এক লাখ বিশ হাজার টাকা নেন। এরপর দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও আর দলিল করে দেননি। এ অবস্থায় ওই জমির দখল চাইতে গেলেই ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছিল সিরাজুল ইসলামের পরিবার। এসব নিয়ে গ্রামে একাধিক শালিস-বৈঠক হলেও সমস্যার সমাধান হয়নি। গত মঙ্গলবার আবারো জমি দখল করতে গেলে কল্পনা দা নিয়ে ভয় দেখায়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে প্রতিপক্ষ কল্পনাকে ধরে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করে।

ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নূরুল ইসলাম জানান, অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের সত্যতা পাওয়া গেছে। এ ঘটনার সঙ্গে যারাই জড়িত থাকুক না কেন তাদের কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। ইতিমধ্যে দুজনকে আটক করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মতামত...