,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

অশুভ শক্তিকে পরোক্ষভাবে সহযোগিতা করা হচ্ছে:প্রধান বিচারপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা, ১০ ডিসেম্বর (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম):: প্রত্যেক ধর্মে কিছু না কিছু খারাপ লোক থাকে তারা সংখ্যায় নগণ্যও তারা মানুষের অকল্যাণ করে থাকে, যা অকল্পনীয়,  আগে তারা সমাজের পণ্ডিত ব্যক্তিদের হত্যা করতো আর এখন তারা ভালো লোকদের খুন করছে অভিযোগ করে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেন আমাদের সমাজের অশুভ শক্তিকে আমরাই পরোক্ষভাবে সহযোগিতা করছি।

sk chinha বলেন, এই অশুভ শক্তি বা খারাপ লোকেরা এতো শক্তি পায় কোথায়? তাদের কেউ না কেউ সরাসরি নয় ইনডিরেক্টলি সহযোগিতা করে।

আইনজীবী সমিতি ভবনের শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে আয়োজিত ‘বিজয়া’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধান বিচারপতি। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির বিজয়া পুনর্মিলনী পরিষদ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

প্রধান বিচারপতি বলেন, প্রত্যেক ধর্মে কিছু না কিছু খারাপ লোক আছে। তারা সংখ্যায় নগণ্য। সময়ে সময়ে তারা মানুষের অকল্যাণ করে থাকে, যা অকল্পনীয়। আগে তারা সমাজের পণ্ডিত ব্যক্তিদের হত্যা করতো। এখনও তারা ভালো লোকদের খুন করছে।

তিনি আরো বলেন, সমাজের অশুভ শক্তি বা খারাপ লোকেরা সমাজে প্রকাশ্যে ঘোরাফেরা করতে পারেন। কারণ, তারা সরাসরি নয়, পরোক্ষভাবে আশ্রয়-প্রশ্রয় পান। আমরা যদি প্রত্যেকেই সচেতন ও সজাগ হই, তাহলে সমাজ থেকে দুর্নীতি, ঘুষ, সন্ত্রাস, হানাহানি থেকে পরিত্রাণ পেতে পারি।

অনুষ্ঠানে সভাপত্বি করেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব সভায় আরো বক্তব্য রাখেন- হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি শামীম হাসনাইন, অ্যাটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট মাহবুবে আলম, বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল বাসেত মজুমদার, সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, সুপ্রিমকোর্ট বারের সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, অ্যাডভোকেট গৌরাঙ্গ চন্দ্র কর প্রমুখ।

প্রধান বিচারপতি তার বক্তব্যে আইনজীবীদের উদ্দেশে বলেন, সম্মানিত আইনজীবীদের আমি বলছি, হ্যাঁ আপনাদের কিছু দায়িত্ব আছে। কিন্তু এই যদি হয়…আপনারা বার কাউন্সিলের রুলস যেগুলো আছে সেই রুলসগুলো আপনারাই মানেন না। আমি আপনাদের কাছে আবেদন করছি। আপনারা একটু সহযোগিতা করেন। আপনাদের পেশা শুধু টাকা আয়ের জন্য না। যারা গরীব, বিচার থেকে বঞ্চিত যারা তাদের মামলাগুলো নিষ্পত্তি করতে হবে। প্রকৃতপক্ষে তারা কোর্টে বিচার পাচ্ছে না।
তিনি বলেন, ‘আমি আন্তরিকভাবে চেষ্টা করছি। আপনারা যদি সহযোগিতা না করেন সমাজ থেকে কোনো দিনই অন্যায় থেকে ন্যায় প্রতিষ্ঠা করতে পারবো না।

প্রধান বিচারপতি বলেন, এখানে ৯৫% বিচারক ও আইনজীবী। এখানে বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান সাহেব আছেন। আমরা প্রত্যেকে একই পরিবারের সদস্য। সঙ্গত কারণে বিচার বিভাগ এবং আইনের শাসনের অভিভাবক হিসেবে আমি, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এবং অ্যাটর্নি জেনারেল আছেন। আপনাদের কাছে আমার একটা আবেদন। আজকে আমরা আইনের শাসনের কথা বলি। যে কারণে আজকে এ মহান পেশা প্রবর্তন করা হয়েছে। এটা তো শুধু আমরা,

খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন,  দেবী দুর্গা মানুষের মাঝে আসেন শান্তির বার্তা নিয়ে। দেশে আজ যে অশুভ শক্তির আবিভার্ব হয়েছে বিচারবিভাগ যদি মাথা উঁচু করে দাড়ায় তাহলে অনেক অশুভ শক্তি মাথাচারা দিয়ে উঠতে পারবে না। জুডিশিয়ারি যদি পদানত হয়ে যায় তার চেয়ে দুভার্গ্য আর নয়।

মতামত...