,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

অ্যালেক্সার রমরমা র‌্যাংকিং বাণিজ্য-সচেতন হন

দেশে ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে অনলাইন নিউজ পোর্টাল। তথ্যপ্রযুক্তির উৎকর্ষতায় পাঠক চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় একের পর এক বাজারে আসছে নতুন অনলাইন মিডিয়া। কাগুজে পত্রিকাগুলোও পাঠক ধরে রাখতে অনলাইন সংস্করণে নিজেদের উপস্থিতি জানান দিচ্ছে জোরেশোরে। বলতে গেলে দেশে এখন অনলাইন মিডিয়ার প্রতিযোগিতা চলছে। আর সে কারণে বিজ্ঞাপনের বাজার ধরতেও চলছে প্রতিযোগিতা। এই প্রতিযোগিতায় নিজেদের র‌্যাংক বা পাঠকপ্রিয়তা প্রমাণ করতে এলেক্সা নামক এক নতুন অনুসঙ্গকে স্ট্যান্ডার্ড হিসেবে প্রচার করছে বাংলাদেশের অনলাইন মিডিয়াগুলোর বেশিরভাগই, যদিও বিশ্বের অন্যান্য দেশে এলেক্সা এক ভুয়া ও প্রতারক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ইতিমধ্যেই পরিচিতি পেয়েছে। খবর শীর্ষ কাগজের সৌজন্যে।

জানা গেছে, গত কয়েক মাসেই বাংলাদেশে চালু হয়েছে বেশ কিছু নতুন অনলাইন নিউজ পোর্টাল। আর নিউজ  পোর্টাল বেড়ে যাওয়ায় র‌্যাংকিংয়ে কে কার আগে যেতে পারবে তা নিয়েও চলছে নানা কৌশল আর প্রতিযোগিতা। এর কারণ, যে ওয়েবসাইট যত আগের র‌্যাংকে থাকবে তাদের পক্ষে বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছ থেকে বিজ্ঞাপন সংগ্রহ করা সহজ হবে। বিজ্ঞাপনের রেটও বেশি হবে। তাই অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলোর মধ্যে নিউজের পাশাপাশি চলে অ্যালেক্সা র‌্যাংকিং-এ এগিয়ে থাকার প্রতিযোগিতা। আর প্রতিযোগিতার এই মোক্ষম সুযোগকে কাজে লাগাতে ভুল করেনি ধান্ধাবাজ অ্যালেক্সা ডটকম। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশ থেকে প্রতি মাসে বড় অংকের অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে অ্যালেক্সা ডটকমের প্রতিনিধিরা।

অবাক করার মতো বিষয় হলো- বাংলাদেশের মাত্র দুটি ওয়েবসাইট ছাড়া অন্য কোনো ওয়েবসাইটের পেজ ভিউয়ার অথবা কতজন পেজটিতে ক্লিক করেছে তার কোনো হদিস পাওয়া যায় না এই অ্যালেক্সা ডটকমে। অথচ শুধুমাত্র পেজ ভিউয়ার, ইউনিক ভিজিটর এবং সাইট লিংকিং-এর ওপরই নির্ভর করে পেজটির র‌্যাংকিং বা অবস্থান। প্রশ্ন হলো, অ্যালেক্সার কাছে যদি সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর পেজ ভিউয়ার এবং ইউনিক ভিজিটর সংক্রান্ত তথ্য না-ই থাকে তাহলে কীভাবে এসব ওয়েব পোর্টাল প্রতিষ্ঠানের র‌্যাংকিং নির্ধারণ করছে অ্যালেক্সা?

আরো মজার বিষয় হলো, গুগলে সার্চ দিয়ে অ্যালেক্সা ডটকম বের করা হয়। কিন্তু সেই গুগল এনালাইটিকস-এর কোনো গ্রহণযোগ্যতাই নেই বাংলাদেশের বিজ্ঞাপনদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে।

আরো মজার বিষয় হচ্ছে বাংলাদেশের ইন্টারনেট ভিজিটররা সাধারণত গুগল বা গুগল ডটকম.ডটবিডি থেকেই অন্যান্য ওয়েবসাইট ব্রাউজ করেন। এমনকি অ্যালেক্সাও গুগল থেকে ব্রাউজ করা হয়। কিন্তু অ্যালেক্সা র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের তালিকায় সেই গুগলের র‌্যাংকই হচ্ছে তিন নম্বরে। আবার দেখা যাচ্ছে, অ্যালেক্সার র‌্যাংকিংয়ে তাদের নিজেদেরই কোনো স্থান নেই।

বাংলাদেশে অ্যালেক্সার টপওয়েবসাইট তালিকায় অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি নিউজ পোর্টালকে রাখা হয়েছে ৪০ এরো পরে। আর কমপক্ষে দুটি অখ্যাত নিউজ পোর্টালকে রাখা হয়েছে যথাক্রমে ২০ এবং ২৫-এর আগে। এক জরিপে দেখা গেছে, অ্যালেক্সা ডটকমে ১০ থেকে ২০-এর মধ্যে অবস্থানরত কয়েকটি অনলাইন পোর্টাল-এর গুগল এনালাইটিকস-এর পেজ ভিউয়ার দেখাচ্ছে ৩২ হাজার থেকে ৩৫ হাজারের মধ্যে। কিন্তু এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অ্যালেক্সা র‌্যাংকিংয়ে ৩০-এর বাইরে থাকা একটি নিউজ পোর্টালে গড়ে প্রতিদিন প্রায় ৩ লাখ পেজ ভিউয়ার দেখাচ্ছে। এতে বোঝাই যায়, অ্যালেক্সা র‌্যাংকিং কতটা ভুয়া!alx

মতামত...