,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

আইএসের মাসিক আয় ‘৮০ মিলিয়ন ডলার

জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটকে (আইএস) পৃথিবীর সবচেয়ে সম্পদশালী গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে অন্যতম হিসেবে বিবেচনা করা হয়। সম্প্রতি এক হিসেবে দেখা যাচ্ছে, আইএসের মাসিক আয় ৮০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।
 প্রতিবছর তেল বিক্রি করে আইএস ৫০০ মিলিয়ন ডলার উপার্জন করে। ইরাক এবং সিরিয়ার অনেক বড় তেল ক্ষেত্রে এখন আইএস নিয়ন্ত্রিনে। এই তেল ক্ষেত্র থেকে প্রতিদিন ৪০ হাজার ব্যারেল তেল উত্তোলন করা হয়। লুটকরা পুরাকীর্তি বিক্রি করেও অর্থ উপার্জন করে আইএস।
মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আইএসের হাতে যাতে কোনভাবেই অর্থ না যায় সে বিষয়টি নিশ্চিত করেতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য ১৫টি দেশের অর্থমন্ত্রীরা এক প্রস্তাব গ্রহণ করেছে।
১৯৯৯ সালে আল-কায়েদার অর্থের উৎস বন্ধ করতে যে প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়েছিল তার ভিত্তিতেই আইএসের বিরুদ্ধে এই প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়েছে। তেল ক্ষেত্র লক্ষ্য করে বিমান হামলাও চলছে।
অভিযোগ রয়েছে, সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাসার আল আসাদ দালালদের সহযোগিতায় আইএসের কাছ থেকে তেল কিনছে। তবে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন আইএস’র কাছ থেকে তুরস্ক তেল কিনে। পুতিন বলেন, আইএস নিয়ন্ত্রিত এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ তেল তুরস্কে যায় বলে তার কাছে তথ্য রয়েছে।
তবে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান পুতিনকে চ্যালেঞ্জ করে বলেছেন, আইএসের কাছ থেকে তুরস্কের তেল কেনার বিষয়টি যদি রাশিয়া প্রমাণ করতে পারে তাহলে তিনি পদত্যাগ করবেন। আর যদি প্রমাণ করতে না পারেন, তাহলে কি  পুতিন তার পদে থাকবেন? প্রশ্ন করেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান। খবর-310 বিবিসি

 

মতামত...