,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জোট করছে না

647দিলরুবা খানম  :: আওয়ামী লীগ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন এককভাবে করার প্রস্তুতি নিচ্ছে এবং ১৪ দলীয় জোট শরিকদের সঙ্গে কোনো আসন ভাগাভাগি করবে   না   ।

আওয়ামী  লিগ সূত্রে প্রকাশ , ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীদের যে চাপ রয়েছে তাতে এককভাবেই মনোনয়ন দেওয়া কঠিন হয়ে পড়বে। এ অবস্থায় জোটবদ্ধভাবে নির্বাচন করার মতো পরিস্থিতি আওয়ামী লীগের নেই।

গেল  পৌরসভা নির্বাচনেও এককভাবেই অংশ নিয়ে ছিল  আওয়ামী লীগ ।

আগামী মার্চের  মাঝামাঝি সময়ে  ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ সপ্তাহেই  ইউপি  নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করার কথা রয়েছে নির্বাচন কমিশনের।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মতো স্থানীয় সরকারের সকল  নির্বাচনও দলীয়ভাবে এবং দলীয় প্রতীকে করার আইন হওয়ায় এবারের  ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন যেমন  প্রথমবাবের মতো দলীয়ভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে তেমনি  রাজনৈতিকভাবেও  এই নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

দলীয়ভাবে ও দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত হওয়ায় দলের চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে এখনই চাপের মধ্যে রয়েছে আওয়ামী লীগ। প্রতিটি ইউনিয়নেই ৪/৫ জন বা তার বেশি  চেয়ারম্যান প্রার্থী যারা দলীয় মনোনয়ন পেতে বিভিন্নভাবে গ্রুপিং ও লবিং চালাচ্ছেন। দলের কেন্দ্রীয় ও প্রভাবশালী নেতা এবং মন্ত্রীদের কাছে ধর্না দিতে শুরু করেছেন।

 

এ পরিস্থিতিতে  একক প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে যেখানে দলকে হিমশিম খেতে হবে, সেখানে শরিকদের ছাড় দেয়ার প্রশ্নই আসে না। বরং দলের নীতি-নির্ধারক ও নেতারা ভাবতে শুরু করেছেন বিদ্রোহী প্রার্থীদের ঠেকানো বিষয়ে ।

 

ইউপি নির্বাচনে জোটের আবস্থান কি হবে   জানতে চাওয়া হলে আওয়ামী লীগের যুগ্ম- সম্পাদক মাবুবুল আলম হানিফ বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমকে বলেন,  ১৪ দল  জাতীয় নির্বাচনের জোট। এটা তো স্থানীয় সরকার নির্বাচন। এ নির্বাচন জোটগতভাবে করার কোন চিন্তা আওয়ামি লিগের নেই।

আওয়ামী লীগের আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমকে  বলেন, ১৪ দল  রাজনৈতিক আদর্শের ওপর গড়ে ওঠা একটি জোট, স্থানীয় সরকার নির্বাচনে আওয়ামি লীগ এক্কভাবেই  করবে। এতে এ নির্বাচনে জোটের শরিকরা তৃণমূলে তাদের দল গোছাতে সুযোগ পাবে ।

মতামত...