,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন সংক্রান্ত অভিযোগ তদন্তে কমিটি হচ্ছেঃসেতুমন্ত্রী

al obaidu quderনিজস্ব প্রতিবেদক,বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ ঢাকা,ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে কেউ দলীয় মনোনয়ন না পেলেই যুদ্ধাপরাধী ফ্যামিলির কেউ মনোনয়ন পেয়েছে বলে অভিযোগ করেন, এমন মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার ধানমন্ডির একটি কমিউনিটি সেন্টারে আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় কাউন্সিল উপলক্ষে মঞ্চ ও সাজসজ্জা উপকমিটির দ্বিতীয় সভায় এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ‘কোনো প্রার্থী মনোনয়ন না পেলেই যুদ্ধাপরাধী ফ্যামিলির কেউ মনোনয়ন পেয়েছে বলে অভিযোগ করেন। আবার টাকাপয়সার লেনদেন হচ্ছে; এমনও অভিযোগ করছেন। এসব কথাবার্তা বাস্তবে না যতটা সত্য, তার চেয়ে বেশি অপপ্রচার হচ্ছে।’

আওয়ামী লীগের মনোনয়নবঞ্চিতদের নানা অভিযোগের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা ঠিক করেছি, একটি কমিটি করে দেব। এই কমিটি এসব বিষয়ে খোঁজখবর নেবে। যে অভিযোগগুলো আছে, কমিটি তা তদন্ত করে খোঁজখবর নেবে। সত্যিই কি এটা সত্যিকারের বিষয়, নাকি মনোনয়ন না পেয়ে মনের দুঃখ থেকে টাকাপয়সা লেনদেনের কথা বলা হচ্ছে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে যদি সত্যতা থাকেও আমরা সত্যতা যাচাই করে দেখব।

তিনি বলেন, এমন কমিটির বিষয়ে সকালে অলরেডি আমরা চিন্তাভাবনা করেছি। এটা নেত্রীর সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে চূড়ান্ত করা হবে। প্রাথমিকভাবে আমরা কমিটির সদস্যদের মনোনীত করেছি। যদি এটা কোনো কোনো ক্ষেত্রে সত্য হয়, তাকেও শাস্তির সম্মুখীন হতে হবে। সত্য হলেই কিন্তু তার রেহাই নেই, ক্ষমা নেই। নেত্রী গতকাল আমাদের মনোনয়ন বোর্ডের সভায় নির্দেশ দিয়েছেন।’

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন হবে বাঙালি জাতির যে শাশ্বত স্বপ্নের নবায়ন। এখানে নতুন কোনো স্বপ্ন থাকবে না, স্বপ্নের নবায়ন হবে। সম্মেলন মানেই নবায়ন। সবদিক থেকে পরিবর্তনের বিষয় মাথায় রেখেই আমরা এই সম্মেলন করতে যাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, আমি মনে করি, এবারের সম্মেলন আমাদের দলের ঘোষণাপত্র এবং গঠনতন্ত্রে সময়ের চাহিদার সঙ্গে সংগতি রেখে আমাদের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করবেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। ঘোষণাপত্রে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে এবং সঙ্গে সঙ্গে এবারের সম্মেলনে জাতির প্রত্যাশা অনুযায়ী ডিজিটাল বাংলাদেশের ভিশনের সঙ্গে সংগতি রেখে টেকনোলজি এবং ট্রেডিশনের মধ্যে সুন্দর সমন্বয় করে। প্রবীণের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে এবার বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা জাতিকে আগামী দিনের জন্য নবীন কিছু মুখ উপহার দেবেন। প্রবীণদের পাশাপাশি একঝাঁক নবীনের সমন্বয় করবেন। সেই টার্গেট সামনে রেখে আমরা প্রস্তুতির পর্যায়ে আছি।’

মঞ্চ ও সাজসজ্জা উপকমিটির আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর কবির নানকের সভাপতিত্বে প্রস্তুতি সভায় আরও বক্তব্য দেন কমিটির সদস্যসচিব মির্জা আজম, সদস্য বদিউজ্জামান ভূঁইয়া, অসীম কুমার উকিল, সুজিত রায় নন্দী, এনামুল হক শামীম, এস এম কামাল হোসেন প্রমুখ।

 বি এন আর/০০১৬/০০৪/০০১৯/০০০৫৪৫৬/এন

মতামত...