,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

উখিয়ার বালুখালী পাহাড়ে নতুন ক্যাম্পে রোহিঙ্গারা আশ্রয় পাবে

কক্সবাজার সংবাদদাতা, ৬ সেপ্টেম্বর, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে পুলিশ  ও সেনাদের অভিযানে প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে কয়েক লাখ রোহিঙ্গা। পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের বসবাসের জন্য ৫০ একর পাহাড়ি জমি নির্ধারণের প্রস্তাবনা করেছে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক।

সরকারের অনুমতি পেলে রোহিঙ্গাদের এখানে একত্র করা হবে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজারের জেলা প্রশাসকের পক্ষে অতিরিক্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খালেদ মাহমুদ।

কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার বালুখালী ইউনিয়নে ৫০ একর পাহাড়ি জমি নির্বাচিত করা হয়েছে। এ এলাকায় পূর্বে থেকে দুটি রোহিঙ্গা ক্যাম্প আছে। এ দুটি ক্যাম্পে নিবন্ধিত ২০ হাজার রোহিঙ্গা বসবাস করছে। যদিও এ সংখ্যা দেড় লাখ বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

অতিরিক্ত নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট খালেদ মাহমুদ জানান, প্রস্তাবনা করা হলেও এখনো অনুমতি পাওয়া যায়নি। তবে রোহিঙ্গাদের প্রস্তাবিত স্থানের আশপাশে অবস্থান করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

গত ২৫ আগস্ট থেকে ৫ সেপ্টেম্বর দুপুর পর্যন্ত বাংলাদেশে নতুন করে ১ লাখ ২৩ হাজার রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর। বিবৃতিতে সংস্থার পক্ষে বলা হয়েছে, নতুন করে আসা রোহিঙ্গাদের মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। তাদের সহায়তা জরুরি।

তবে ইউএনএইচসিআরের পরিসংখ্যান মানতে রাজি নন জনপ্রতিনিধিসহ স্থানীয়রা। তারা জানিয়েছেন, নতুন করে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা তিন লাখের কাছাকাছি। মঙ্গলবার সকাল থেকে সীমান্তের অনন্ত ৩০টি পয়েন্ট দিয়ে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ অব্যাহত রয়েছে।

নদীতে আরেক রোহিঙ্গার মৃতদেহ উদ্ধার 
টেকনাফে নাফ নদী থেকে আরো এক রোহিঙ্গা নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপের গুলারচর এলাকা থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়। এর আগে টেকনাফে ৫৪ ও ঘুমধুম সীমান্ডে ২ রোহিঙ্গার মৃতদেহ পাওয়া যায়।

টেকনাফ থানার ওসি মো. মাইন উদ্দিন খান জানান, বিকেলে শাহপরীর দ্বীপের গুলারচরে নাফ নদীতে মিয়ানমার সীমান্ত থেকে ভেসে আসা রোহিঙ্গা নারীর মৃতদেহ দেখে পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ সেখানে গিয়ে এক রোহিঙ্গা নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে মৃতদেহ দাফন করা হবে বলে জানিয়েছেন ওসি।

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে পুলিশ পোস্ট ও সেনাক্যাম্পে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের হামলার পর সেনা অভিযানে প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে কয়েক লাখ রোহিঙ্গা। পালিয়ে আসার সময় নাফ নদীতে তিনটি নৌকা ডুবে যায়।

মতামত...