,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

এপিক হেলথ্‌, ন্যাশনাল ও ম্যাক্স হাসপাতালকে ১৭ লাখ টাকা জরিমানা

aনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ চট্টগ্রাম মহানগরের বেসরকারি এপিক হেলথ্‌ কেয়ার ক্লিনিক, ন্যাশনাল ও ম্যাক্স হাসপাতালে র্যাদবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে নানা অনিয়ম ধরা পড়েছে। যে কারণে তিন প্রতিষ্ঠানকে ১৭ লাখ টাকা জরিমানা গুনতে হয়েছে।
রোববার ২৬ জুন  র্যাাব-৭ এর ভ্রাম্যমাণ আদালত তিন প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করে। র্যারব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সরওয়ার আলমের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।
নগরের মেহেদীবাগে ন্যাশনাল হাসপাতালকে ৬ লাখ, পার্শ্ববর্তী ম্যাক্স হাসপাতালকে ৫ লাখ এবং চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সামনে এপিক হেলথ্‌ কেয়ারকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া মেডিক্যাল কলেজ রোডের পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে মেয়াদোত্তীর্ণ কেমিক্যাল দিয়ে রোগীদের পরীক্ষা করার দায়ে প্রতিষ্ঠানটিকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি তিনটি ফার্মেসিতেও অভিযান চালিয়ে ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
অভিযানে অংশ নেওয়া র্যািব-৭ এর এএসপি মো. জালাল উদ্দিন আহমেদ বিডিনিউজ রিভিউজকে জানান, ন্যাশনাল হাসপাতালের আইসিইউতে অস্বাস’্যকর ও অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে রোগীদের সেবা দেওয়া হয়। এছাড়া প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব ফার্মেসিতে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ পাওয়া গেছে। একইভাবে ম্যাক্স হাসপাতালের নিজস্ব ফার্মেসিতেও মেয়াদোত্তীর্ণ ও তাপমাত্রা সংরক্ষণবিহীন ওষুধ পাওয়া গেছে। এছাড়া এপিক হেলথ কেয়ারে অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে রোগীদের সেবা দেওয়া এবং অনুমোদন ছাড়া ফার্মেসিতে ওষুধ বিক্রি করা হয়। এসব অভিযোগে তিন প্রতিষ্ঠানকে অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।
তিন বেসরকারি ক্লিনিকে অভিযান শেষে র্যা বের ভ্রাম্যমান আদালত হানা দেয় ফার্মেসিতে। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সামনে তিন ফার্মেসিতে অভিযান চালিয়ে ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
প্রতিষ্ঠান তিনটি হলো-ডায়মন্ড ফার্মেসি, জনতা ফার্মেসি ও পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের নিজস্ব ফার্মেসি।
জানা গেছে, তিন ফার্মেসি থেকে বিপুল পরিমাণ অনুমোদনহীন ফুড সাপ্লিমেন্ট, মেয়াদোত্তীর্ণ এবং নকল ওষুধ জব্দ করা হয়।

মতামত...