,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

এবার গোয়েন্দাদের টার্গেট সেই জিয়া ও মারজান

zia marjanনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ পুরস্কার ঘোষিত শীর্ষ জঙ্গি নেতা তামিম আহমেদ চৌধুরী পুলিশের ‘অপারেশন হিট স্ট্রং-২৭’-এ নিহত হয়েছে। পুলিশের জঙ্গি দমন ইউনিটের সদস্যরা এর মাধ্যমে সফলতার একটি ধাপ পেরিয়ে গেলেও এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে পুরস্কার ঘোষিত আরেক শীর্ষ জঙ্গিনেতা চাকরিচ্যুত মেজর সৈয়দ জিয়াউল হক ও জঙ্গি ডেরায় এখনও আত্মগোপনে দুর্ধর্ষ জঙ্গি নুরুল ইসলাম মারজানসহ আরও কয়েকজন।

এবার গোয়েন্দাদের টার্গেটে সেই জিয়া, মারজান ও তাদের সহযোগীরা। তাদের অবস্থান শনাক্ত করে গ্রেফতারের জন্য চলছে একের পর এক অভিযান। নারায়ণগঞ্জে অভিযানের মতো জঙ্গিবাদ দমনে হয়তো শিগগিরই আরও কিছু সফলতা আসতে পারে বলে আশাবাদী গোয়েন্দারা।

পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের কর্মকর্তারা বলছেন, জঙ্গি দমন একটি চলমান প্রক্রিয়া। তবে তামিম অধ্যায় শেষ হওয়ার পর এবার তারা জিয়া এবং মারজানকে হন্যে হয়ে খুঁজছেন। তাদের এখন বড় লক্ষ্য এ দু’জনকে গ্রেফতার করা। তাহলে আপাতত দেশে জঙ্গি কার্যক্রমের লাগাম টানা সম্ভব হবে।

কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান ডিআইজি মনিরুল ইসলাম জানান, তারা পলাতক মেজর জিয়া, মারজানসহ কয়েক জঙ্গিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছেন। তাদের মতো আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অন্য সংস্থাগুলোও তাদের গ্রেফতারে অভিযান চালাচ্ছে।

 

মতামত...