,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

এশিয়া কাপের ফাইনালকে স্মরণীয় করে রাখতে চান টাইগাররা

a ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ ঢাকা, এশিয়া কাপে   শক্তিশালী শ্রীলঙ্কা ও শেষ ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়ে  প্স্বরথম বারের মতো স্বপ্নের  ইনালে উঠেছে বাংলাদেশ, টাইগারদেরে  প্রতিপক্ষ সে ভারতই।এশিয়া কাপের প্রথম ফাইনাল কে স্মরণীয় করে রাখতে টাইগাররা সবার কাছে দোয়া চাইলেন।

আগামীকাল রোববার এশিয়া কাপের ফাইনাল। বাংলাদেশ দলের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান তামিম এই ম্যাচে খেলতে নামবেন পাকিস্তান সুপার লিগে অসাধারণ ব্যাটিং করার আত্মবিশ্বাস নিয়ে। তবে নিজেকে আলাদা করে গুরুত্বপূর্ণ মানতে নারাজ তামিম।  শুক্রবার মিরপুর শের-ই-বাংলায় অনুশীলন শেষে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এই ওপেনার জানালেন, দায়িত্বটা সবাইকেই নিতে হবে। তিনি বলেন, ‘শুধু আমি নই, দলের সবাই মূল খেলোয়াড়। টি-টোয়েন্টি হয়ত ২০ ওভারের খেলা, তবে আমি মনে করি এটি ২ ওভারের খেলা। ব্যাটিংয়ে দুটি ওভারে ১৫ করে রান এলো অথবা বোলিংয়ে দুই ওভারে দুটি করে উইকেট; আচমকাই ম্যাচের রূপ বদলে যেতে পারে।’

তামিম বলেন, ‘একটি জিনিস নিশ্চিত, ভারতের সঙ্গে আমাদের জিততে হলে ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং তিন বিভাগেই সেরা ক্রিকেট খেলতে হবে। কারণ প্রথম ম্যাচে তারা খুব বাজে অবস্থা থেকে ফিরে এসে ম্যাচ জিতেছে। তাদের সেই স্কিল রয়েছে। ভুলগুলো কম করলে সবকিছুই সম্ভব।’

অতীত অভিজ্ঞতায় ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে জ্বলে ওঠেন তামিম ইকবাল। ২০১২ এর এশিয়া কাপে (ওয়ানডে ফরমেট) টানা চারটি হাফসেঞ্চুরি করেছিলেন তামিম- যার একটি ভারতের বিপক্ষে। অতীত কি আত্মবিশ্বাস যোগায় কিনা; এমন প্রশ্নে তামিম বলেন, ‘আগে মোটামুটি কিছু ভালো খেলেছি। কিন্তু এগুলো অতীত। রোববার যখন আমি শুরু করবো তখন নতুন একটি দিন।’ ওপেনার হিসেবে যে একটা বাড়তি দায়িত্ব আছে, সেটি ভালো ভাবেই জানেন তামিম। তিনি বলেন, ‘আমার ও আমার পার্টনারের কাজ হলো দলকে ভালো শুরু এনে দেওয়া। প্রতিপক্ষ সবসময়ই চায় শুরুতে উইকেট নিতে, দায়িত্বটা তাই আরও বেশি থাকে। এই টুর্নামেন্টে ওপেনারদের সময়টা খুব কঠিনও যাচ্ছে। আমরা চেষ্টা করব উপভোগ করতে ও ভালো করতে।’

প্রসঙ্গত, ভারতীয় পেসার যশপ্রীত বুমরাহকে নিয়ে ‘হোমওয়ার্ক’ করেই মাঠে নামছে বাংলাদেশ। এখন পর্যন্ত ১০ টি-টোয়েন্টিতে তার উইকেট ১৪টি। বুমরাহকে নিয়ে আলাদা করে ভাবার কারণ তার বোলিংয়ের ধরণও। অনেকটাই অপ্রথাগত অ্যাকশন ২২ বছর বয়সী ডানহাতি পেসারের, নতুন ব্যাটসম্যানের জন্য শুরুতে বুমরাহকে ধরে ফেলা একটু কঠিন। রোববারের ফাইনালে বাংলাদেশের হয়ে কঠিন এই কাজটি করতে হবে তামিম ও সৌম্য সরকারকে। সবসময়ই শুরুতে স্ট্রাইক নিতে পছন্দ করেন তামিম,শুরুতে খেলবেন তিনিই। তামিম জানালেন, ‘বুমরাহর বিষয়ে কথা হয়েছে আমাদের। ওর বোলিং টিভিতে দেখেছি। যতটা সম্ভব হোমওয়ার্ক করেছি ওকে নিয়ে। আমিই হয়ত শুরুতে খেলব ওকে। দেখা যাক কী হয়।’

সন্তান সম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকার জন্য এশিয়া কাপের স্কোয়াডে শুরু থেকে ছিলেন না তামিম। সদ্যজাত সন্তানের মুখ দেখে দেশে ফিরেছেন পরদিনই। মুস্তাফিজুর রহমানের চোট তামিমকে সুযোগ করে দিয়েছে খেলার। পাকিস্তানকে হারিয়ে ফাইনাল ওঠার ম্যাচ দিয়েই ফিরেছেন তামিম। মোহাম্মদ আমিরকে দারুণ এক ফ্লিকে ছক্কাও মেরেছিলেন। তবে ফিরে যান ৭ রান করেই। তামিম জানালেন, ফেরার ম্যাচ বলে একটু অস্বস্তি ছিল। জ্বলে ওঠার আশা করছেন ফাইনালে। জানালেন, ‘আমি টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে সম্প্রতি যেভাবে খেলে সফল হয়েছি, সেভাবেই খেলার চেষ্টা করব। সবকিছু যদি ঠিকঠাক থাকে, তাহলে দিনটি আমার হবে।

 

বি এন আর/০০১৬০০৩০০৫/০০০৬৯/পি

মতামত...