,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

এস এস সি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শনে মেয়র, শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যান

দনিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম,০৩, ফেব্রুয়ারি (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম):: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মোহাম্মদ শাহজাহান, সচিব ড.পীযুষ কান্তি দত্ত, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. মাহাবুব হাসান, অংকুর বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র সচিব লিলি বড়–য়া সহ শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে বুধবার, সকালে নগরীর অংকুর সোসাইটি স্কুলের এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। কেন্দ্র পরিদর্শনকালে মেয়র পরীক্ষার্থীদের সুযোগ সুবিধার বিষয়ে খোঁজ খবর নেন এবং কেন্দ্র প্রধানের সাথে কথা বলে কেন্দ্রের পরিবেশ সম্পর্কে জানতে চান। পরে মেয়র কেন্দ্রের বাহিরে পরীক্ষার্থীদের অভিভাবকদের সাথে কথা বলেন। মেয়র পরীক্ষার্থীদের শতভাগ নিরাপত্তা, তাদের স্বাস্থ্যের প্রতি সুনজর রাখা এবং পরীক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় চাহিদা পুরনে কেন্দ্র প্রধানকে আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালনের আহবান জানান।

 জাইকা সাহায্যপুষ্ট প্রকল্প অগ্রগতি পর্যালোচনা

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের অধীনে জাইকা সাহায্যপুষ্ট সিটি গভর্নেন্স প্রকল্পভূক্ত চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের অবকাঠামো উন্নয়ন ও ইনক্লুসিভ নগর পরিচালনা উন্নতকরণ কর্মসূচির ফেইস ১ এর ১৮টি প্রকল্পের বাস্তবায়ন সংক্রান্ত বুধবার সিটি কর্পোরেশনের সম্মেলন কক্ষে প্রকল্প পরিচালক ও সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারদের সাথে বৈঠক করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন। বৈঠকে জাকির হোসেন রোড, এয়ারপোর্ট রোড, মেরিনার্স রোড, রুবি সিমেন্টের পাশের ব্রীজ, ৯নং গুপ্তখালের ব্রীজ, ১৫নং খালের উপর ব্রীজ, চাক্তাই খালের উপর পিসি গার্ডার ব্রীজ, ফিসারীঘাটের ব্রীজ, জলিলগঞ্জ ব্রীজ, টেক পাড়া ব্রীজ সহ দরপত্রের কার্যাদেশ প্রাপ্ত ১৮টি প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি পর্যালোচনা করা হয়। সিটি মেয়র ঠিকাদারদের সামাজিক দায়িত্ববোধ ও দায়বদ্ধতা থেকে চট্টগ্রামের স্বার্থ বিবেচনায় নির্ধারিত সময়ের মধ্যে মান ঠিক রেখে অবকাঠামো উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত করার উপর গুরুত্বারোপ করেন । মেয়র বলেন, কাজের গুনগত মানের প্রশ্নে কোন ধরনের ছাড় পাওয়ার সুযোগ নেই। তিনি ২০ মার্চের মধ্যে নির্ধারিত ধাপ পেড়িয়ে পরবর্তী ধাপে যাওয়ার সুযোগ নিশ্চিত করতে হবে। উন্নয়ন কাজে নিয়োজিত প্রজেক্ট পরিচালকদেরকে নিয়মিত মনিটরিং করে যথানিয়ম ও সময়ের মধ্যে যাবতীয় কাজ বুঝে নেয়ার নির্দেশনা দেন। মেয়র বলেন, দেশপ্রেমে বলিয়ান হয়ে সংশ্লিষ্ট সকলকে স্ব স্ব দায়িত্ব যথাযথভাবে সম্পাদন করতে হবে।
বৈঠকে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শফিউল আলম, সচিব রশিদ আহমদ, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম, আনোয়ার হোছাইন, নির্বাহী প্রকৌশলী মনিরুল হুদা, আবু ছালেহ, মো. কামরুল ইসলাম, জাইকার প্রতিনিধি প্রকৌশলী জাহাঙ্গীর আলম সহ সহকারী প্রকৌশলী, উপ-সহকারী প্রকৌশলী ও সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

চসিক শিক্ষা ও একুশে  বই মেলা কমিটির সভা

বুধবার বিকেলে সিটি কর্পোরেশনের সম্মেলন কক্ষে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক স্থায়ী কমিটি এবং একুশে বইমেলা কমিটির সভা কমিটির সভাপতি নাজমুল হক ডিউকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শফিউল আলম, স্থায়ী কমিটির সদস্য কাউন্সিলর মো. গিয়াস উদ্দিন, মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী, হাসান মুরাদ বিপ্লব,হাবিবুল হক, সৈয়দা কাশপিয়া নাহরিন দিশা, মিসেস ফারহানা জাবেদ, সদস্য সচিব মিসেস নাজিয়া শিরিন, মেয়রের একান্ত সচিব ও বই মেলা কমিটির সদস্য সচিব মোহাম্মদ মঞ্জুরুল ইসলাম, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী, ডা. নাসিম ভুঁইয়া, ডা. আশিষ কুমার মূখার্জী, ডা. আর পি আসিফ খান, ডা. তৌহিদুল আনোয়ার খান, শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুর রহমান, বই মেলা কমিটির সদস্য অধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক, সহকারী অধ্যাপক মিসেস রেহেনা আক্তার খানম, প্রভাষক আবু তালেব বেলাল, প্রভাষক মোহাম্মদ সাহেদ ও সংগীত শিক্ষক অশোক সেন গুপ্ত। সভায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও অমর একুশে স্মরনে সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে ১৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ খ্রি. ১৪ দিন ব্যাপি মুসলিম ইনষ্টিটিউট চত্বরে বই মেলা আয়োজনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। এছাড়াও একুশে পদক প্রদান, চিত্রাংকন সহ সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা আয়োজন, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। সভায় যে সকল প্রতিষ্ঠানে বিষয় ভিত্তিক শিক্ষক স্বল্পতা রয়েছে সে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অন্য প্রতিষ্ঠানের উদ্বৃত্ত শিক্ষকদের বদলী করে সমন্বয় করা এবং বোর্ডের বিধিবিধানের আওতায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের পরিচালনা কমিটি হালনাগাদ করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। এছাড়াও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহে নিজস্ব নীতিমালা প্রণয়ন কার্যক্রম শেষ করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয় এবং বয়স্ক শিক্ষা কেন্দ্রগুলোকে মনিটরিং করা ও এ সব বয়স্ক শিক্ষা কেন্দ্রের পাঠদান কার্যক্রম তদন্ত করার জন্য শিক্ষা সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটিকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

মতামত...