,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

এ সংকটের শেকড় অনেক গভীরে : খালেদা

aনিজস্ব  প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, দেশ ও জাতির বর্তমান ও ভবিষ্যৎ আজ বিপন্ন।  কে ক্ষমতায় থাকবে সেটা বড় কথা নয় সন্ত্রাস দমনই বড় কথা। তিনি বলেন, গণতন্ত্রহীন দেশে অসহিষ্ণু রাজনীতি ও আইনের শাসনের অভাব চলতে থাকলে জঙ্গিবাদ মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে।  গুলশানে সন্ত্রাসী হামলায় দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় দুর্বলতা, ত্রুটি এবং সন্ত্রাসীদের ক্ষমতার প্রকটতা ফুটে উঠেছে। দলবল নির্বিশেষে সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সন্ত্রাসবাদকে প্রতিহত করতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। গুলশান হামলার ঘটনা ও দেশের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে রোববার দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন খালেদা জিয়া। খালেদা জিয়ার সভাপতিত্বে রোববার বিকেল ৪টায় গুলশানে চেয়াপারসনের রাজনৈতিক

কার্যালয়ে এ বৈঠক শুরু হয়। বৈঠকে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্রি. জে. (অব.) আ স ম হান্নান শাহ, ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এসময় খালেদা জিয়া ভেদাভেদ ভুলে দলমত নির্বিশেষে সন্ত্রাসবিরোধী ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, কেবল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দিয়ে সন্ত্রাস দমন করা যাবে না।  এ সংকটের শেকড় অনেক গভীরে।  আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করলে সংকট আরো ঘনিভূত হবে। গুলশান হামলায় নিহতদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান বেগম জিয়া।  জীবন বাজি রেখে জিম্মিদের উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়ার জন্য সেনাবাহিনী, পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান তিনি। জিম্মিদের উদ্ধার করতে গিয়ে যে দুজন পুলিশ কর্মকর্তা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের আত্মত্যাগের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান বেগম জিয়া। খালেদা জিয়া বলেন, গুলশানে নিহত বাংলাদেশি পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।  বিদেশি নাগরিকদের জন্য গভীর শোক প্রকাশ করছি। তিনি বলেন, শুক্রবার রাতের ঘটনায় শুধু একটি রেস্তোরাঁর নয়, এ ঘটনায় সারাদেশের ক্ষতি হয়েছে। আমাদের অর্থনীতি ও আন্তর্জাতিক ভাবমূর্তির ক্ষেত্রে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। খালেদা জিয়া বলেন, সবার মনে রাখতে হবে যে, রাজনৈতিক অসহিষ্ণুতা ও সুশিক্ষার অভাবে সমাজে সংকট আরো ঘনীভূত হচ্ছে।

 

মতামত...