,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

কওমী মাদ্রাসায় জঙ্গি প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে মন্তব্য খাদ্যমন্ত্রীর

1001নিজস্ব প্রতিবেদক,চট্টগ্রাম,২১, জানুয়ারি (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম):: দেশের কওমী মাদ্রাসা গুলোতে জঙ্গিবাদীদের প্রশিক্ষণ ক্যাম্প রয়েছে ও ট্রেনিং দেয়া হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘ব্যাঙের ছাতার মতো এলাকায় এলাকায় কওমী মাদ্রাসা গড়ে উঠছে। এসব কওমী মাদ্রাসার অনেকগুলোতে অস্ত্র ও বিস্ফোরক পাওয়া যাচ্ছে। কোথাও ট্রেনিং দেওয়া হচ্ছে। এ ধরণের জঙ্গিবাদি কার্যক্রমের বিরুদ্ধে মানবাধিকার কর্মীদের সোচ্চার হতে হবে।’

বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরীর মুসলিম হল মিলনায়তনে সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম মহানগর কমিটি আয়োজিত আর্ন্তজাতিক মানবাধিকার সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলে।

খাদ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘কওমি মাদ্রাসা গুলো কেন হচ্ছে, কারা করেছে? এ সমস্ত মাদ্রাসাগুলোর মধ্যে জঙ্গিদের আস্তানা কোন গুলো সেগুলো আপনাদের চিহ্নিত করতে হবে এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে আপনাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর বাংলাদেশের মানুষ স্বপ্ন দেখা ভুলে গিয়েছিল। কেউ কল্পনাও করতে পারেনি পদ্মা সেতু হবে। প্রধানমন্ত্রী সেই অবাস্তবকেই বাস্তবে পরিণত করছেন। এর আগে বাংলাদেশে নারী প্রধানমন্ত্রী থাকলেও নারীরা প্রাপ্য মর্যাদা ও অধিকার পাননি। নারীদের মাতৃত্বকালীন ছুটি-ভাতাসহ সেই সুযোগ দিয়েছেন শেখ হাসিনা।’

মাদকের বিরুদ্ধে মানবাধিকার কর্মীদের সোচ্চার হবার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন,‘মানবাধিকার কর্মীরা সমাজের সুবিধা বঞ্চিতদের উন্নয়নে কাজ করছে। মাদক নতুন প্রজন্মকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। ফেনসিডিল-ইয়াবা-কোকেনের এত বড় বড় চালান বাংলাদেশে প্রবেশ করছে, সমাজটাকে ধ্বংস করার জন্য সুগভীর চক্রান্ত এটা।  সেগুলো চট্টগ্রামের মধ্য দিয়ে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ছে।  নতুন প্রজন্মকে ধ্বংস করে দেয়া হচ্ছে।  এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হবেন এবং সঠিক পদক্ষেপ নেবেন।’

সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন’র মহানগর সভাপতি ও চট্টগ্রাম মহানগর পিপি অ্যাডভোকেট ফখরুদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান আলোচক ছিলেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা ও পাবর্ত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি।

বিশেষ অতিথি ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি বিচারপতি মো. আবদুস সালাম, সংগঠনের নেপাল কমিটির সভাপতি নেপালের সাবেক সংসদ সদস্য মো. নজিব মিঞ্চা, সংগঠনের মহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা মোহাম্মদ আবেদ আলী, অধ্যাপক মাসুম চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা এসএম মুর্তজা হোসাইন, এসএম আজিজ প্রমুখ।

 

মতামত...