,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

কক্সবাজারের চকরিয়ায় অস্ত্রের মুখে কলেজ ছাত্রীকে অপহরণ

policeচকরিয়া প্রতিনিধি,বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম:: কক্সবাজারের চকরিয়ায় উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন এইচএসসি প্রথমবর্ষে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে অপহরণ করেছে বখাটেরা। শুক্রবার বিকেলে পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে চকরিয়া কলেজ গেইটের সামনে মহাসড়ক থেকে ওই ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে মাইক্রোবাসে তুলে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার পর এখনো হদিস মেলেনি। উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে মানবিক বিভাগ থেকে এইচএসসি প্রথমবর্ষের পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছিল ওই ছাত্রী। এ ঘটনার পর গতকাল শনিবার মেয়েকে উদ্ধারের জন্য তার বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

অপহৃত ছাত্রীর ছদ্মনাম তানিয়াতুন নূর (২০)। তার বাড়ি উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের চার নম্বর ওয়ার্ডের মাইজ কাকারা গ্রামে। থানায় দেওয়া অভিযোগে জানা গেছে, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে তানিয়াতুন নূর চলমান এইচএসসি প্রথম বর্ষের পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছিল। গত শুক্রবার পরীক্ষায় অংশ নেয় ওই ছাত্রী। পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার জন্য কলেজ গেইটের সামনে আসামাত্র আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা একদল বখাটে তাকে ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে মুখ চেপে জোরপূর্বক মাইক্রোবাসে তুলে চট্টগ্রামের দিকে নিয়ে যায়। এ ঘটনা জানার পর পরিবারের সদস্যরা বিভিন্নস্থানে খোঁজ নিলেও  শনিবার বিকেল তিনটা পর্যন্ত ওই ছাত্রীর কোন হদিস মেলেনি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে অপহৃত ছাত্রীর বাবা অভিযোগ করেন, কৈয়ারবিল ইউনিয়নের ছোঁয়ালিয়া পাড়ার মোস্তাক আহমদের বিবাহিত ছেলে বখাটে মিজানুর রহমান ও তার সহযোগী বদরুসহ ৫-৬ জনের একদল বখাটে তার কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে অপহরণ করে। এর আগে কলেজে যাওয়া-আসার পথে প্রতিনিয়ত প্রেম নিবেদনসহ নানাভাবে উত্যক্ত করে আসছিল বখাটেরা। এমনকি তার মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার জন্য বিভিন্নজনের মারফত বাড়িতে প্রস্তাবও পাঠায়। কিন্তু বিবাহিত হওয়ায় মিজানের সঙ্গে বিয়ে না দেওয়ায় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে জোরপূর্বক মাইক্রোবাসে তুলে অপহরণ করা হয়।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুল আজম বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমকে বলেন, ‘কলেজে পড়ণ্ডয়া ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগে তার বাবা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। অভিযোগ পাওয়ার পর মেয়েটিকে উদ্ধারের জন্য বিভিন্নস্থানে সোর্স নিয়োগ করা হয়েছে। পাশাপাশি প্রযুক্তির সহায়তাও নেওয়া হচ্ছে।’

মতামত...