,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

কক্সবাজারের ৩ উপজেলায় ১৭ ইউপিতে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা

aআবদুর রাজ্জাক, কক্সবাজার সংবাদদাতা, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ছাড়া মোটামুটি শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে কক্সবাজারের ৩ উপজেলার ১৭ ইউনিয়নের নির্বাচন। নির্বাচন চলাকালে কেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার নিয়ে বিভিন্ন প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা থাকলেও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর নজরদারী ও তড়িৎ গতিতে পদক্ষেপ ও ব্যবস্থা নেওয়ার কারণে সকাল ৮ থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত বড় ধরনের কোন ঘটনা ছাড়াই সম্পন্ন হয়ে গেল শেষ ধাপের নির্বাচন। নির্বাচন চলাকালে অনিয়ম ও প্রভাব বিস্তারের অভিযোগে উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের বিএনপি প্রার্থী ভোট বর্জন করেন। এছাড়া জালালাবাদে বুথে ঢুকে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে ব্যালটে সিল মারার অভিযোগে স্বতন্ত্র প্রার্থী জসিমউদ্দিন মিয়াজী দুপুরে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন। গতকাল অনুষ্ঠিত নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৯৬ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৯৮ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৭২১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বান্দতা করেন। ৩ উপজেলার মোট ১৫৮টি স্থায়ী ও একটি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্রের ৭১৩টি স্থায়ী ও ১২০টি অস্থায়ী বুথে গতকাল ভোটগ্রহণ করা হয়। ভোটগ্রহণ শেষে ঘোষিত বেসরকারী ফলাফলে আওয়ামীলীগ সমর্থিতরা ৮টিতে, আওয়ামী বিদ্রোহীরা ৫টিতে, বিএনপি সমর্থিতরা ২টিতে ও বিএনপি বিদ্রোহীরা ২টিতে বিজয়ী হয়। জামায়াত স্বতন্ত্র প্রার্থী দিয়ে নির্বাচনে অংশ নিলেও কোন ইউনিয়নেই তারা বিজয়ী হতে পারেনি।
ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী কক্সবাজার সদরের পোকখালীতে আওয়ামী বিদ্রোহী প্রার্থী কারাবন্দী রফিকুল ইসলাম ঢোল প্রতীক নিয়ে, ইসলামাবাদে আওয়ামী বিদ্রোহী নুর ছিদ্দিক মোটর সাইকেল প্রতীক নিয়ে, ঈদগাঁও ইউনিয়নে আওয়ামী বিদ্রোহী ছৈয়দ আলম মোটর সাইকেল প্রতীক নিয়ে, জালালাবাদে আওয়ামীলীগ প্রার্থী জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ইমরুল হাসান রাশেদ, চৌফলদন্ডিতে আওয়ামীলীগ প্রার্থী ওয়াজ করিম বাবুল কোম্পানী এবং ইসলামপুরে বিএনপি প্রার্থী আবুল কালাম বেসরকারীভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া রামুর ফতেখাঁরকুলে আওয়ামীলীগের প্রার্থী ফরিদুল আলম, জোয়ারিয়ানালায় আওয়ামীলীগ প্রার্থী কামাল সামসুদ্দিন আহমদ প্রিন্স, খুনিয়া পালং-এ আওয়ামীলীগ প্রার্থী সাংবাদিক আবদুল মাবুদ (পূননির্বাচিত), চাকমারকুলে আওয়ামীলীগ প্রার্থী নুরুল ইসলাম সিকদার, দক্ষিণ মিঠাছড়িতে আওয়ামী বিদ্রোহী ইউনুছ ভূট্টো এবং রাজারকুলে আওয়ামীবিদ্রোহী মুফিজুর রহমান আনারস প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাছাড়া উখিয়ার রাজারকুলে আওয়ামীলীগের জাহাঙ্গীর কবীর চৌধুরী (পূননির্বাচিত), হলদিয়ায় আওয়ামীলীগের অধ্যক্ষ শাহ আলম, রতœা পালং-এ বিএনপি বিদ্রোহী খায়রুল আলম চৌধুরী, জালিয়াপালং-এ বিএনপির নুরুল আমিন চৌধুরী ও পালংখালীতে বিএনপির বিদ্রোহী গফুরউদ্দিন চৌধুরী (পূননির্বাচিত) ঘোড়া প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে বিজয়ী হয়েছেন।

মতামত...