,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

কক্সবাজারে পাসপোর্ট জালিয়াতির অভিযোগে ২ মহিলার জেল

কক্সবাজার সংবাদদাতা, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম::কক্সবাজারে জালিয়াত করে পাসপোর্ট সংগ্রহের চেস্টার সময় দুই মহিলাকে হাতেনাতে আটক করে এক মাসের করে সাজা দেয় হয়

ভিন্ন দুই মহিলার জন্ম নিবন্ধন সনদ, চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট ও অানুষাঙ্গিক কাগজপত্রের সাথে নিজেদের ছবি সংযোজন করে পাসপোর্ট পাওয়ার জন্য আবেদন করেছিল। আবেদনে গড়মিল থাকার দায়ে বুধবার বিকালে কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস থেকে পুলিশ এদের আটক করে রাতে দুই জনকে এক মাসের করে সাজা দেয় হয়।

কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস সূত্রে জানা গেছে, উখিয়া উপজেলার মরিচ্যা পালং ইউনিয়নের রুমখাঁ নতুন পাড়ার অলি আহমদের দুই মেয়ে ছেনুয়ারা ও তৈয়বা বেগমের নামে জন্ম নিবন্ধন সনদ, চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট ও অন্যান্য কাগজপত্র সহকারে দুইটি পাসপোর্ট আবেদন জমা দেয়ার জন্য কাউন্টারে দাঁড়ায় দুই মহিলা। সহকারী পরিচালক আবু নাঈম মাসুম নিজেই এসময় আবেদন কাউন্টারে বসে পাসপোর্ট আবেদন জমা নিচ্ছিলেন। সহোদরা দুই বোনের নামে আবেদন ফাইল দুটি’র কাগজ পত্র, কথাবার্তা ও মহিলাদ্বয়ের মুখাবয়বে অসঙ্গতি দেখে সন্দেহ হলে দুটি ফাইলই আটকে রাখেন তিনি।

তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে আপন বোন নয় বলে স্বীকার করে এবং তারা চাচাতো বোন বলে দাবি করলে জালিয়াতির বিষয়টি স্পষ্ট হয় । এভাবে অন্যের নামীয় কাগজপত্রের সাথে নিজেদের ছবি লাগিয়ে পাসপোর্ট জালিয়াতি প্রচেষ্টার বিষয়টি প্রমানিত হলে তাদেরকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক আবু নাঈম মাসুম বলেন, অত্র অফিসে প্রতিদিন প্রতিটি পাসপোর্ট আবেদন গ্রহন থেকে প্রসেসিং ও ডেলিভারী পর্যন্ত প্রত্যেক ধাপে নিবিড় তদারকির ফলে এদের আটক করা সম্ভব হয়েছে।

কক্সবাজার সদর থানার ওসি রনজিত কুমার বড়ুয়া বলেন, দুই মহিলার বাড়ি উখিয়ায়। কিন্তু তারা কক্সবাজার শহরের কুতুবদিয়া পাড়ার কাগজপত্র ব্যবহার করে পাসপোর্ট পাওয়ার আবেদন করেছিল। এই অভিযোগে বুধবার রাত ৮ টায় সদর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মো. নোমান হোসেনের মাধ্যমে ভ্রাম্যমান আদালতে দুইজনকে একমাসের করে কারাদন্ড দেয়া হয়।

মতামত...