,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফ’র কমান্ডার একে-২২ রাইফেলসহ গ্রেপ্তার

খাগড়াছড়ি সংবাদদাতা,  বিডিনিউজ রিভিউজ.কম::খাগড়াছড়ির রামগড়ে সেনাবাহিনী ও পুলিশের যৌথ অভিযানে একটি বিদেশি একে–২২ রাইফেল ও বিভিন্ন আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলা বারুদসহ দুইজন উপজাতীয় সন্ত্রাসী আটক হয়েছে।

রবিবার (১৪ জানুয়ারি) গভীর রাতে এ অভিযান চালানো হয়। আটকদের মধ্যে একজন নিজেকে ইউপিডিএফের পোস্ট কমান্ডার বলে দাবি করেছেন।

সেনাবাহিনী ও পুলিশ জানায়, রবিবার রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে রামগড় থানাধীন দুর্গম এলাকা প্রেমতলায় যৌথবাহিনী অভিযানে যায়। সিন্ধুকছড়ি সেনা জোনের উপ অধিনায়ক মেজর তৌহিদ সালাহ উদ্দিনের নেতৃত্বে সেনাবাহিনী ও রামগড় থানার পুলিশের একটি বিশেষ দল ঐ দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। এসময় প্রেমতলা এলাকায় জনৈক উপজাতির একটি ঘরে তল্লাশী করতে গেলে দু’জন সন্ত্রাসী পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। যৌথবাহিনী পিছু ধাওয়া করে তাদের দু’জনকেই ধরে ফেলতে সক্ষম হয়। ধৃতরা হচ্ছে : লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার বাইগ্যাপাড়ার হেংদাাই চাকমার ছেলে সুজন চাকমা ওরফে নীরব (২৮) ও মানিকছড়ির থলিপাড়ার পাইন্দাই মারমর ছেলে আব্বাই মারমা (৩৩)। পরে ঐ ঘর তল্লাশী করে ইউএসএসআর’র তৈরি একটি একে–২২ রাইফেল, একটি বড় এলজি, একটি ছোট এলজি, একে ২২ রাইফেলের ম্যাগজিন ১টি, একে–২২ রাইফেলের গুলি ১০ রাউন্ড, এলজি’র বুলেট ৪ রাউন্ড, রাম দা ১টি, টর্চলাইট, মোবাইল ফোন সেট, চাঁদা আদায়ের রশীদ বই, ইউপিডিএফের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর লিফলেট ইত্যাদি উদ্ধাার করা হয়। যৌথবাহিনীর জিজ্ঞাসাবাদে আটকরা নিজেদের ইউপিডিএফের সদস্য বলে স্বীকার করেছে। এদের মধ্যে সুজন চাকমা ওরফে নীরব (২৮) ইউপিডিএফের পোস্ট কমন্ডার বলে যৌথ বাহিনীকে জানায়। সে আরও জানায়, পার্টি (ইউপিডিএফ) কর্তৃপক্ষ তাকে তিন মাস আগে রামগড়ের লাচারিপাড়া এলাকায় পোস্টিং দেয়। তবে এ ব্যাপারে ঐ সংগঠনটির পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি। অভিযানে অংশগ্রহণকারী রামগড় থানার এএসআই সিদ্দিকুর রহমান জানান, রবিবার রাত আনুমানিক আড়াইটা হতে ভোর ৫টা পর্যন্ত এ অভিযান চলে। সেনাবাহিনীর একটি সূত্র জানায়, আটকরা ইউপিডিএফের সশস্ত্র গ্রুপের সদস্য। এদের নিয়ন্ত্রণে ঐ এলাকায় চাঁদা আদায়সহ সকল অপতৎপরতা পরিচালিত হতো। দীর্ঘদিন ধরে তাদের এ সশস্ত্র তৎপরতা গোয়েন্দা নজরদারিতে রাখা হয়। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রবিবার রাতের এ যৌথ অভিযান চালানো হয়।

রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শরীফুল ইসলাম জানান, গতকাল সোমবার দুপুরে আটক দুই সন্ত্রাসী ও উদ্ধার করা অস্ত্র, গুলি ও অন্যান্য সামগ্রী থানায় হস্তান্তর করে নিরাপত্তা বাহিনী। তিনি বলেন, আটকদের বিরুদ্ধে থানায় অস্ত্র আইনের ১৯–ক ধারায় একটি মামলা হয়েছে।

মতামত...