,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

খাদিজার অবস্থা আগের চেয়ে ভালো: নিউরো সার্জন ডা. রেজাউস সাত্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ স্কয়ারে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সিলেটের সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসের অবস্থা আগের চেয়ে ভালো বলে জানিয়েছেন নিউরো সার্জন ডা. রেজাউস সাত্তার। তিনি বলেছেন, খাদিজা চোখ খুলেছে। ডান হাত-পা নাড়িয়েছে। তার সুস্থতার বিষয়ে তারা আশাবাদী।

আজ শনিবার বেলা একটার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে অপেক্ষমাণ সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান তিনি।

গত মঙ্গলবার থেকে এখানে চিকিৎসাধীন খাদিজার সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে জানাতে চিকিৎসকরা আজ আনুষ্ঠানিকভাবে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

শুরুতে হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সহযোগী কনসালটেন্ট মির্জা নাজিম উদ্দিন বলেন, ‘৪ অক্টোবর সিলেটের ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ১৯ বছরের একজন রোগী আমাদের এখানে আসেন। তার মাথায় কোপানোর আঘাত রয়েছে। এ কারণে তার মাথায় অপারেশন করা হয়েছে। তার চিকিৎসার ব্যাপারে আপনাদের বেশ আগ্রহ রয়েছে। ওই রোগীকে ৭২ ঘণ্টা অবজারভেশন করার পরও আরো কিছু সময় অবজারভেশনে রাখা হয়েছিল। এ সময়ে রোগীর কী উন্নতি হয়েছে আর কী উন্নতি হতে পারে, এ ব্যাপারে বিস্তারিত বলবেন নিউরো সার্জন রেজাউস সাত্তার।’

ডা. রেজাউস সাত্তার বলেন, ‘৭২ ঘণ্টার পরও আরো কিছু সময় অবজারভেশনে রাখার উদ্দেশ্য পার্ট অব ট্রিটমেন্ট। প্রথমত আমাদের চিকিৎসার উদ্দেশ্য ছিল তার কনশাসনেসের উন্নতি করা। এখনো অবজারভেশনে তার চিকিৎসা চলছে। আরো ৯৬ ঘণ্টার পর বলা যাবে তার কী অবস্থা। তবে সে চোখ খুলেছে এবং ডান হাত-পা নেড়েছে।’

এ সময় অন্য একজন চিকিৎসক মির্জা নাজিম উদ্দিন খাদিজার মৃত্যুর গুজব নাকচ করে দিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘খাদিজা আগের চেয়ে ভালো। ভালো হলে আপনারা ম্যাসেজ পেয়ে যাবেন।’

৩ অক্টোবর দুপুরে সিলেটের এমসি কলেজে স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে খাদিজাকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) ছাত্রলীগের সহসম্পাদক বদরুল আলম। পরে জনতা তাকে ধাওয়া করে ধরে পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

খাদিজাকে প্রথমে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে পরদিন ভোরে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে আনা হয়।

শাবিপ্রবির শিক্ষার্থী বদরুল বুধবার আদালতে দেয়া জবানবন্দিতে স্বীকার করেন, তার প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় খাদিজাকে কোপান তিনি।

মতামত...