,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

খালেদা জিয়া চট্টগ্রাম আসছেন আজ: কাল যাবেন কক্সবাজারে

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম::বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া আজ শনিবার চট্টগ্রাম আসছেন। আগামীকাল রবিবার টেকনাফে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শন ও ত্রাণ বিতরণ করতে কক্সবাজার যাবেন তিনি। ৫ বছর পর খালেদা জিয়ার আগমন উপলক্ষে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রাণচাঞ্চর‌্য ফিরে এসেছে। খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানাতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছেন দলের চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার জেলার নেতাকর্মীরা।

শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় যোগদানের সময় ছাত্রদলের একটি মিছিল সভায় যোগদানের সময় কাজির দেউরি এলাকায় লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুলিশ। তবে দলীয় কার্যালয়ে সমন্বয় সভায় কোনো ব্যাঘাত ঘটেনি।

দলীয় সূত্র জানায়, খালেদা জিয়ার আগমনে কয়েকদিন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা চট্টগ্রামে অবস্থান করছেন। তারা নগর, উত্তর ও দক্ষিণের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে দফায় দফায় করে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। গতকালও দলীয় কার্যালয় নাসিমন ভবনে সাবেক মন্ত্রী আবদুল্লাহ আল নোমান ও দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী তার বাসভবনে পৃথকভাবে তিন সাংগঠনিক জেলার নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেছেন।

দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী দলীয় নেতাদের নিয়ে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউস পরিদর্শন করেছেন। খালেদা জিয়া আজ (শনিবার) ও সোমবার দুই রাত কাটাবেন চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে। পরিদর্শনে উপস্থিত ছিলেন নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর, সিনিয়র সহ–সভাপতি আবু সুফিয়ান, যুগ্ম সম্পাদক এয়াছিন চৌধুরী লিটন প্রমুখ।

আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী তার বাসভবনে মহানগর উত্তর দক্ষিণ জেলার বিভিন্ন থানার বিএনপি ও সহযোগী নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। সাবেক মন্ত্রী আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আওয়ামী লীগ দুঃসাশনবিরোধী আন্দোলনে বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বৃহত্তর চট্টগ্রাম অগ্রণী ভূমিকা রেখেছে। মামলা–হামলা উপক্ষো করে রাজপথে সাহসের সঙ্গে আন্দোলন করেছে। বেগম খালেদা জিয়াকে বরণ করে নিতে চট্টগ্রামবাসী এখন ঐক্যবদ্ধ। চট্টগ্রামবাসী প্রমাণ করবে বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আগামী দিনেও জনগণ সরকারবিরোধী আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়বে।

সফর সূচি : ২৮ অক্টোবর (শনিবার) সকাল ১০টায় তিনি ঢাকার গুলশান বাসভবন থেকে রওয়ানা দিবেন। দুপুর দুইটায় ফেনী সার্কিট হাউসে বিরতি নিবেন। বিকেল তিনটায় চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবেন। শনিবার বিকেল ৫টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে পৌঁছাবেন এবং রাত কাটাবেন। পরদিন ২৯ অক্টোবর (রবিবার) সকাল ১১ টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউস থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবেন। বিকেলে কক্সবাজার সার্কিট হাউসে পৌঁছে সেখানে রাত কাটাবেন। ৩০ অক্টোবর (সোমবার) সকাল ১০টায় রওনা হয়ে টেকনাফের বালুখালী ড্যাব পরিচালিত মেডিক্যাল ক্যাম্প, বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প–২, বোয়ালমারা ও জামতলী রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন। সেখান থেকে বিকেলে কক্সবাজার সার্কিট হাউসে ফিরে বিরতি নিবেন। বিকেল ৪টায় চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওয়া দিবেন। রাত ৯টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউস পৌঁছবেন এবং সেখানে রাত কাটাবেন। ৩১ অক্টোবর (মঙ্গলবার) সকাল ১০ টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউস ত্যাগ করে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন।

দীর্ঘদিন পর খালেদা জিয়ার আগমনে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের নেতাকর্মীরা উজ্জীবিত হয়ে উঠেছে। দলের চেয়ারপার্সনকে স্বাগত জানাতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা।

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী আবদুল্লাহ আল নোমান বলেছেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে স্বত:স্ফুর্তভাবে স্বাগত জানাবে হাজার হাজার বিএনপি নেতাকর্মী ও চট্টগ্রামের জনগণ। তিনি বলেন, চট্টগ্রাম থেকে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন। জিয়াউর রহমান চট্টগ্রামে শাহাদাত বরণ করেছিলেন। সেই সূত্রে চট্টগ্রামের মানুষের সাথে জিয়া পরিবার এবং বিএনপির নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে।
গতকাল বিকেল ৪টায় নগরীর নাসিমন ভবন বিএনপি কার্যালয় চত্বরে কর্মী সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি। মহানগর ও উত্তর জেলা বিএনপি ও মহানগরীর বিভিন্ন থানা–ওয়ার্ড বিএনপির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আবদুল্লাহ আল নোমান বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে জাতীয় ঐকমত্য প্রতিষ্ঠা করতে হবে। জাতিসংঘের মাধ্যমে ত্রি–পক্ষীয় আলোচনার মাধ্যমে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করতে হবে।

মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দীন, ভাইস চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা গোলাম আকবর খোন্দকার, নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর, সিনিয়র সহ–সভাপতি আবু সুফিয়ান, সহ–সভাপতি এমএ সবুর, এডভোকেট আবদুস সাত্তার প্রমুখ।

ছাত্রদল : চট্টগ্রাম মহানগর, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের যৌথ উদ্যোগে স্বাগত মিছিলের আয়োজন করা হয়। নগর ছাত্রদলের সভাপতি গাজী মো. সিরাজ উল্লাহর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন বুলুর সঞ্চালনায় মিছিল পূর্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের মাঈনুদ্দীন মুহাম্মদ শহীদ, আমিনুল ইসলাম তৌহিদ, নগর ছাত্রদলের জসিম উদ্দিন চৌধুরী, আলী মর্তুজা খান, শেখ রাসেল, জমির উদ্দিন নাহিদ, গোলজার হোসেন, জহিরুল হক টুটুল, ইফতেখার উদ্দিন নিবলু, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের আবদুল্লাহ আল নোমান প্রমুখ।

দলের কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজান বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়াকে বাদ দিয়ে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে না। গতকাল শুক্রবার দুপুরে পটিয়া উপজেলা ও পৌরসভা বিএনপির প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

পটিয়া পৌরসভা বিএনপির আহ্বায়ক নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলমের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এনি, বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম, পটিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ চৌধুরী টিপু, যুবদল নেতা বদরুল খায়ের চৌধুরী, বিএনপির মোজাম্মেল হক, আবদুল জলিল চৌধুরী, রেজাউল করিম নেছার, আবদুল মোনাফ, মফজল আহমদ চৌধুরী, জসিম উদ্দিন মাস্টার প্রমুখ।

দলীয় চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে অভ্যর্থনা জানাতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে মিরসরাই বিএনপি। নেতাকর্মীরা রাস্তার দু’ধারে অবস্থান নিয়ে খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানাবে।

দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে মিরসরাই বিএনপিতে দ্বন্দ্ব লেগে রয়েছে। খালেদা জিয়ার আগমনে কোন্দলের উত্তাপ কিছুটা লাগব হয়েছে। গতকাল দিনভর বিএনপির নেতারা শোডাউন করেছে। হামলা–মামলায় এলাকাছাড়া নেতাকর্মীরাও গতকাল রাস্তায় নেমেছেন।

মিরসরাই উপজেলা বিএনপির আহবায়ক নুরুল আমিন বলেন, ‘বেগম জিয়ার আগমনে সকল মতবেদ ভুলে সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়েছে।

খালেদা জিয়ার কক্সবাজারে আসার খবরে দলীয় নেতাকর্মীরা উজ্জীবিত। নেতাকর্মীদের পদচারণায় দলীয় কার্যালয় মুখর হয়ে উঠেছে। সড়ক পথে বিশাল শো–ডাউনের প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। এজন্য দফায় দফায় প্রস্তুতি নিচ্ছেন নেতাকর্মীরা।

কক্সবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি শাহজাহান চৌধুরী বলেন, দলের নেতাকর্মীরা সুশৃঙ্খলভাবে বেগম খালেদা জিয়াকে বরণ করে নিবে। স্বাগত জানাতে রাস্তায় মানুষের ঢল নামবে।

সাবেক সাংসদ লুৎফুর রহমান কাজল জানান, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার আগমনে কক্সবাজারের সাধারণ মানুষ ও দলের নেতাকর্মীরা এখন উজ্জীবিত।

মতামত...