,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

খাল খনন, বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনসহ আধুনিক ও নান্দনিক নগরায়নের পথে মেয়র

azm nasirনিজস্ব প্রতিবেদন, বিডিনিউজ রিভিউজঃ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৫ম নির্বাচিত পরিষদের ১৪তম সাধারণ সভা মঙ্গলবার কে বি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় নির্বাচিত পরিষদের সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর, অফিসিয়াল কাউন্সিলর, ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সহ সিটি কর্পোরেশনের বিভাগীয় প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন। চসিক এর সচিব ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল হোসেন এর উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত ও মোনাজাত করা হয়। মোনাজাতে বিগত সাধারণ সভার পর থেকে ১৪ তম সাধারণ সভা পর্যন্ত সময়ে নগরীতে মৃত্যুবরণকারী নাগরিকদের আত্মার মাগফেরাত এবং চট্টগ্রাম সহ দেশ ও জাতির উন্নতি এবং সমৃদ্ধি কামনা করা হয়। এ ছাড়াও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নাজির আবদুর রহমানের অকাল মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়। সভায় সাধারন সভার কার্যবিবরনী অনুমোদন, স্থায়ী কমিটি সমূহের কার্যবিবরনী আলোচনান্তে অনুমোদন করা হয়। সভার সভাপতি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরের বাজেট পরিকল্পনায় চট্টগ্রামের সার্বিক উন্নয়নের চিত্র উপস্থাপিত হবে। এ লক্ষ্যে নগরভবন নির্মাণ, ৫৫টি ওয়ার্ড কার্যালয় নির্মাণ, ৪টি পশু জবাই কারখানা স্থাপন, ঝুঁকিপূর্ণ ভবন সংস্কার, বাসস্থান নির্মাণ, গ্রিন এ্যাপারেল জোন নির্মাণ, মাল্টিপারপাস প্রকল্পের মাধ্যমে আয়বর্ধন করা, জাইকার মাধ্যমে প্রস্তাবিত ৫৮১ কোটি ৫৯ লক্ষ টাকার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন, এডিবি’র মাধ্যমে প্রস্তাবিত প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়ন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এলাকায় কালভার্ট, ড্রেন ও প্রতিরোধ দেওয়াল নির্মাণ, বর্ষার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা সংস্কার, এলইডি লাইটিং, স্মার্ট সিটি প্রকল্পের আওতায় সড়কবাতির পাইলট প্রকল্প বাস্তবায়ন, খাল খনন, বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন, নগরীর গোলচত্বর, সড়কদ্বীপ, ফুটপাত বিউটিফিকেশনের আওতায় আনায়ন সহ নগরীতে মন্ত্রী ও এমপিদের প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়ন সহ সার্বিক উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরেন, ইতিপূর্বে দেয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ডোর টু ডোর বর্জ্য সংগ্রহ কার্যক্রমের আওতায় ঘরে ঘরে আবর্জনা রাখার জন্য বিন বিতরন করা হচ্ছে। ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে ৪১টি ওয়ার্ডে প্রতিটি ঘরে ঘরে বিন পৌছে দেয়া হবে। নিবিড় তদারকির মাধ্যমে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সফল করা হবে। তিনি বলেন, এ প্রকল্প বাস্তবায়নে কর্মসংস্থান সৃষ্টি সহ নগরীর পরিবেশের সার্বিক উন্নয়ন হবে। মেয়র ঈদুল আযহায় পশু বর্জ্য অপসারনে সফলতার জন্য কাউন্সিলর, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর, পরিচ্ছন্ন বিভাগ সহ সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান। মেয়র প্রতিটি ওয়ার্ডে জরিপ করে জায়গা নির্ধারনের মাধ্যমে আয়বর্ধক প্রকল্প গ্রহণ করার প্রস্তাব দেন। তিনি ওয়ার্ড কার্যালয় ভবনে কমিউনিটি সেন্টার সহ আয়বর্ধক প্রকল্প রাখারও নির্দেশনা দেন। রাস্তা প্রশস্থ করার উপর জোড় দিয়ে বলেন, ক্ষতিপুরন দিয়ে হলেও নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডের রাস্তা প্রশস্থ করা হবে। তিনি সবগুলো স্থায়ী কমিটির কার্যক্রম জোড়দার করার নির্দেশনা দিয়ে বলেন, স্থায়ী কমিটির মাধ্যমে সেবাখাত চিহ্নিত করে প্রস্তাবনা দিতে হবে। মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবায় চসিকের সফলতার চিত্র তুলে ধরে বলেন, শিক্ষাখাতে বছরে ৪২ কোটি টাকা এবং স্বাস্থ্যখাতে বছরে প্রায় ১৩ কোটি টাকা ভর্তুকি দিয়ে সেবা প্রদান করা হচ্ছে। তিনি শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবার বিষয়ে নীতিমালা প্রণয়নের জন্য তাগাদা দেন। সভায় স্বাস্থ্য বিষয়ক স্থায়ী কমিটির প্রস্তাব অনুযায়ী চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত জেনারেল হাসপাতালে বার্ন ইউনিট চালুর বিষয়ে কার্যকর পরিকল্পনা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা দেন। এ ছাড়াও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত ফোরকানিয়া মাদ্রাসার শিক্ষকদের মাসিক সম্মানি প্রদেয় ১ হাজার টাকা থেকে জুলাই ২০১৬ হতে ২ হাজার টাকায় নির্ধারনের প্রস্তাব বাস্তবায়ন, শেরশাহ কলোনী ডা. মাজহারুল হক হাই স্কুল অধিকরনের প্রস্তাব আইনগত দিক বিবেচনা করে বাস্তবায়ন এবং আসন্ন শারদীয় দূর্গোৎসবে ৪১টি ওয়ার্ডে পূজা মন্ডপের অনুদান অনুমোদন, পতেঙ্গা সমূদ্র সৈকতে প্রতিমা বিসর্জন কার্যক্রমের বাজেট অনুমোদন, ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গ্রিন জোন গড়ে তোলা, দুর্যোগ পূর্ব প্রস্তুতি ও সচেতনতা কার্যক্রম সংক্রান্ত যন্ত্রপাতি সংরক্ষন করা, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে চলমান ক্যাম্পেইন অব্যাহত রাখা, ওয়ার্ড ভিত্তিক জঙ্গী প্রতিরোধ কমিটি কার্যক্রম গতিশীল করার উপর গুরুত্ব প্রদান করা হয়। খবর প্রেস বিজ্ঞপ্তির।

মতামত...