,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

গণপরিবহন খাতে শৃঙ্খলা আনয়ন ও চাঁদাবাজির বন্ধের দাবি মহিউদ্দিন চৌধুরীর

mচট্টগ্রাম ধুম-শুভপুর বাস মিনিবাস হিউম্যান হলার মালিক সমিতির স্মারকলিপি প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব এ.বি.এম মহিউদ্দিন চৌধুরী চট্টগ্রাম-ধুম-শুভপুর গণপরিবহন ব্যবস্থাপনায় শৃংখলা আনয়ন ও চাঁদাবাজী প্রতিরোধকল্পে সমিতির নির্বাচিত কমিটি গঠনে তাঁর সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। আজ সকালে চট্টগ্রাম ধুম-শুভপুর বাস-মিনিবাস হলার মালিক সমিতি তাদের দাবী-দাওয়া সম্বলিত একটি স্মারকলিপি তাঁর ব্যক্তিগত কার্যালয়ে প্রদানকালে তিনি এই আশ্বাস প্রদান করে বলেন, গণপরিবহন খাতে একটি স্বার্থান্বাষী মহল পরিকল্পিত ভাবে নৈরাজ্য সৃষ্টি করছে। এতে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে এবং যাত্রী সাধারণ নানাভাবে হয়রানি হচ্ছে। যাত্রী সাধারণের স্বার্থ আমার দেখতে হবে। আমি কিছুতেই চট্টগ্রাম-ধুম-শুভপুর গণপরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য হতে দেবো না। শ্রমিক-মালিক স্বার্থ রক্ষায় আমি সার্বক্ষণিকভাবে সচেষ্ট। দু’একজনের স্বৈরাচারী আচরনে সমিতিকে কুক্ষিগত করার চক্রান্ত চির অবসানে আমি প্রতিশ্রুতি বদ্ধ। আমি শ্রম অধিদপ্তরের যুগ্ম পরিচালকের সাথে আলোচনা করে নির্বাচনের মাধ্যমে সমিতির বৈধ কমিটি গঠনে সহায়তা করবো। এতে বিন্দুমাত্র পিছ পা হবো না। টাকা আত্মসাৎ একটি অমার্জনীয় অপরাধ। যারা টাকা আত্মসাৎ করেছে তাদের শাস্তি পেতে হবে এবং আত্মসাৎকৃত টাকা সমিতিকে ফেরত দিতে হবে। স্মারকলিপিতে বলা হয় একটি স্বার্থান্বেষী মহল কমিটির একনিষ্ঠ সদস্যদেরকে হয়রানী করা হচ্ছে এবং সংগঠনের নীতিমালা অনুযায়ী দায়িত্ব পালনে বাধা দেয়া হচ্ছে। নির্বাচিত দায়িত্বশীল কর্মকর্তাদের উপেক্ষা করার ফলে সমিতি লুটেরাদের আস্তানয় পরিণত হয়েছে। এই অবস্থার অবসান হওয়া জরুরি হয়ে পড়েছে। স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিতি ছিলেন-চট্টগ্রাম ধুম-শুভপুর বাস মালিক সমিতির সহসভাপতি আলী আহছান, যুগ্ম সম্পাদক ফখরুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ হুমায়ন কবির, সদস্য মোঃ মোস্তফা চৌধুরী, সৈয়দ আলিম উদ্দিন ও নিজাম উদ্দিন।

মতামত...