,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

গণভবনে পেশাজীবীদের ইফতার মাহফিল পরিণত হলো মিলন মেলায়

নিজস্ব প্রতিবেদক, ১১ জুন, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম::গণভবনে বসেছিল পেশাজীবীদের মিলন মেলা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার পেশাজীবীদের সম্মানে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করেছিলেন।

গণভবনের সবুজ চত্ত্বরে নির্মিত বিশাল প্যান্ডেলের মধ্যে অনুষ্ঠিত এ ইফতার মাহফিলে লেখক-সাহিত্যিক, সাংবাদিক, আইনজীবী, চিকিৎসক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, ক্রীড়াবিদ, শিল্পী, শিক্ষাবিদ, প্রকৌশলী, ব্যবসায়ী, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, সংস্কৃতিকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ যোগ দেন।

নিজ নিজ ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত সব পেশাজীবীদের আড্ডায় মুখরিত হয়ে উঠে গণভবন চত্বর। ইফতারের আগে প্রধানমন্ত্রী ঘুরে ঘুরে আমন্ত্রিত অতিথিদের সঙ্গে কুশলবিনিময় ও তাদের খোঁজখবর নেন। অনেকের ব্যক্তিগত ও পারিবারিক খোঁজ নিতেও দেখা গেছে। অতিথিরাও তার কুশলাদি জানতে চান। পরে প্রধানমন্ত্রী মঞ্চে উঠে দোয়া ও মিলাদে শরিক হন এবং ইফতারে অংশ নেন।

ইফতারের আগে বাংলাদেশের শান্তি-সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মহিবুল্লাহ হিল বাকি নদভী। ইফতার শেষে কিছু সময় পেশাজীবী নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন প্রধানমন্ত্রী।

গণভবনের সবুজ চত্বরে নির্মিত বিশাল প্যান্ডেলে পেশাজীবীদের উপস্থিতিতে ছিল কানায় কানায় পরিপূর্ণ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে মূল মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন এমিরেটাস অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, প্রবীণ শিক্ষাবিদ ও প্রকৌশল অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, সাবেক বিচারপতি মেজবাহ উদ্দীন, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদার, এটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট মাহবুবে আলম, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাহউদ্দীন, এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, ডা. আ ফ ম রুহুল হক, বিএমএ সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক স্বাস্থ্য উপদেষ্টা অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, কৃষিবিদ আমিরুল ইসলাম ও বাফুফের প্রেসিডেন্ট কাজী সালাউদ্দিন।

ইফতার মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, প্রবীণ আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ চৌধুরী, ইউজিসির চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. হারুন-অর-রশিদ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. কামরুল হাসান খান, প্রো-ভিসি অধ্যাপক ডা. শহীদুল্লাহ শিকদার, এফবিসিআই’র সাবেক সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ, স্বাচিপের সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান, আবদুল মান্নান এমপি, অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব পিযুষ বন্দোপাধ্যায়।

আরো উপস্থিত ছিলেন দৈনিক জনকণ্ঠের উপদেষ্টা সম্পাদক তোয়াব খান, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ শফিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমীন, পিআইবির ডিজি শাহ আলমগীর, কালের কণ্ঠের ইমদাদুল হক মিলন, বাংলাদেশ প্রতিদিনের নঈম নিজাম, যুগান্তরের সাইফুল আলম, বিএফইউজের ওমর ফারুক, ডিইউজের শাবান মাহমুদ, রিপোর্টার্স ইউনিটির শাখাওয়াত হোসেন বাদশা প্রমুখ।

মতামত...