,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

গৃহকর্মী সুরক্ষা ও কল্যাণ নীতি অনুমোদন

384নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা , ২১,ডিসেম্বর(বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম): বাংলাদেশের প্রায় ৩০ লাখ গৃহকর্মীকে আইনি সুরক্ষা দিতে ‘গৃহকর্মী সুরক্ষা ও কল্যাণ নীতি ২০১৫’
অনুমোদন করেছে সরকার।

সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়।

মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে ব্রিফকালে এ তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

নতুন নীতিতে শ্রম আইনের আওতায় আসতে যাচ্ছেন সারা দেশের ৩০ লাখ গৃহকর্মী। নীতিতে সরকারের শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে আর্থিক সহায়তার আওতায় আসবেন গৃহকর্মীরা। একই সঙ্গে বীমা, দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণের নিশ্চয়তাসহ নানা ধরনের সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় আসবেন।

নীতিতে গৃহের পাশাপাশি মেস এবং ডরমিটরিকেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এতে কেন্দ্রীয়ভাবে এবং সিটি করপোরেশন ও জেলা-উপজেলায় মনিটরিং সেল গঠনের কথা বলা হয়েছে। সেখানে গৃহকর্মীরা অভিযোগ জানাতে পারবে। তাদের জন্য হেল্পলাইন চালুর কথাও বলা হয়েছে নীতিতে।

শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, গৃহকর্মীদের সুরক্ষা ও কল্যাণের জন্য নীতি প্রণয়নের উদ্যোগ বেশ পুরনো। নানা কারণে এটি আটকে ছিল। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে সম্মতি দেন। এরপর দ্রুত গতিতে নীতিটির ড্রাফট তৈরি করা হয়।

বাংলাদেশে গৃহকর্মীর সংখ্যা প্রায় ৩০ লাখ। তাদের সুরক্ষার জন্য কোনো নীতি বা আইন ছিল না। তাদের মজুরি, কল্যাণ ও অন্যান্য সুবিধার বিষয়টি নিয়োগকর্তার ইচ্ছার ওপর নির্ভর করে। গৃহকর্মীদের নির্যাতনের ঘটনাও অহরহ ঘটে। খুব কম ঘটনাই আলোচনায় আসে। তাদের সুরক্ষা দেয়ার জন্য সরকারের তদারকি, নজরদারি ছিল না।

বৈঠকে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ আইন ২০১৫ অনুমোদন করা হয়। এছাড়া বৈঠকে দশম জাতীয় সংসদের ২০১৬ সালের প্রথম অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা।

মতামত...