,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চকরিয়ায় ১৮ হাজার হেক্টর জমির আমনে পোকার নাশকতা রোধে আলোক ফাঁদ

cশাহজালাল শাহেদ, চকরিয়া, বিডিনিউজ রিভিউজঃ “আলোক ফাঁদ” এটি একটি সফল সমীক্ষা। চকরিয়ায় চলতি মৌসুমে ১৮হাজার হেক্টর জমিতে আমন ধানের চাষ করেছে উপজেলার কৃষককূল। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আমনের সেই জমিতে ইতিমধ্যে মাননসই ফসল পেতে কৃষকদের পাশে থেকে আলোক ফাঁদ স্থাপনের মাধ্যমে ধানের পোকা দমনে যুগান্তকারী পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে। বিষপ্রয়োগ ছাড়া পোকার অনিষ্ট হতে আমন রক্ষার এমন উদ্যোগে সর্বমহলে প্রশংসিত হচ্ছে।

জানা গেছে, উপজেলা কৃষি বিভাগ কর্তৃক কীটনাশকমুক্ত উন্নত ফসল উৎপাদনের লক্ষ্যে চলতি মৌসুম থেকে আলোক ফাঁদ পদ্ধতি চালু করেছে। ওই আলোক ফাঁদ দিয়ে ফসল বিনষ্টকারী পোকা দমন করা হচ্ছে। চকরিয়া উপজেলার কৃষি জমির ৫১টি ব্লকে আলোক ফাঁদ স্থাপনের মাধ্যমে পোকার উপস্থিতি সনাক্তকরণ ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা প্রহণের জন্য কৃষককে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে কৃষি বিভাগ থেকে। চলতি মৌসুমে আমন ধানের চাষ হচ্ছে অন্তত ১৮হাজার হেক্টর জমিতে।

চকরিয়া উপজেলা কৃষি অফিসার ও বিশিষ্ট কৃষিবিদ মোহাম্মদ আতিক উল্লাহ জানান, আমনের (ধান) বয়স এখন বাড়ন্ত ও কুশি অবস্থায়। এ পরিস্থিতিতে পোকার আক্রমন থেকে চাষাবাদকৃত আমন রক্ষাসহ কৃষকদের পূণর্বাসন করার জন্য উন্নত প্রযুক্তি আলোক ফাঁদ স্থাপন পদ্ধতি চালু করা হয়েছে। ফলে ধানে সহজেই পোকা আসবেনা।

তিনি বলেন, আলোক ফাঁদ বসানোর জন্য পোকার উপস্থিতি সহজেই জানা যাবে। কৃষকরা পাবে কাংখিত ফসল। উপজেলা কৃষি বিভাগের অধীনে ১৮হাজার হেক্টর জমির ৫১টি ব্লকে এ পদ্ধতি চালু করেছে। এতে কৃষকদের মাঠে গিয়ে আমাদের পক্ষ থেকে প্রশিক্ষণসহ প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে।

মতামত...