,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামের উন্নয়নে সকলকে সমন্বিতভাবে কাজ করার আহবান জেলা প্রশাসকের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ২২মে,বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: জেলা প্রশাসক মো. জিল্লুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, ‘দেশের অন্যান্য জেলার মতো চট্টগ্রামেও সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড অব্যাহত রয়েছে। উপজেলা পর্যায়ে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নির্মাণ কাজ, সড়ক মেরামত, ব্রিজ ও কালভার্ট নির্মাণসহ অন্যান্য কাজগুলো এগিয়ে চলছে। দুর্ঘটনা এড়াতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ড ও মিরসরাইসহ জেলার অন্যান্য মূল সড়কে গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনা এবং টেক্সি-টেম্পো স্ট্যান্ড উচ্ছেদের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

‘টার্মিনাল না থাকা বাস ও কোচগুলো সড়কের যত্রতত্র দাঁড়িয়ে যাত্রী উঠানামা করে। ফলে যানজটের সৃষ্টি হয়। সুবিধাজনক স্থানে খাস জমি পাওয়া গেলে তা অধিগ্রহণের মাধ্যমে বাস ও ট্রাক টার্মিনাল করার ব্যাপারে সরকারের সহযোগিতা চাওয়া হবে। এ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী ও জনপ্রতিনিধিদের এগিয়ে আসতে হবে। সমন্বিতভাবে কাজ করলে চট্টগ্রামের উন্নয়ন সম্ভব। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহযোগিতা থাকবে।’

রবিবার সকাল ১০টায় সার্কিট হাউসে জেলা প্রশাসন আয়োজিত জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির মাসিক সমন্বয় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘সরকার আগামী ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে দেশকে ভিক্ষুক মুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছেন। সে লক্ষ্যে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভিক্ষুক মুক্তকরণ কর্মসূচি, এলাকা ও ওয়ার্ডভিত্তিক ভিক্ষুকদের ডাটাবেইজ তৈরির কাজ চলমান রয়েছে।
উপজেলা পর্যায়ে সরকারি স্বাস্থা কমপ্লেক্সগুলোতে ডাক্তার, নার্স ও চিকিৎসাসামগ্রী সংকট বিষয়ে জনপ্রতিনিধিদের বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘সরকারি উপজেলা স্বাস’্য কমপ্লেক্স ও সাব সেন্টারগুলোতে ডাক্তার ও নার্স সংকট রয়েছে। তাছাড়া চিকিৎসাসামগ্রী প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। এসব সংকট নিরসনে সরকারের সহযোগিতা চাওয়া হবে।

বিনোদন পার্ক করার বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানদের বক্তব্যের জবাবে জেলা প্রশাসক বলেন, প্রত্যেক উপজেলায় একটি করে শিশুপার্ক বা বিনোদন পার্ক করার বিষয়ে সরকারের পরিকল্পনা রয়েছে।

সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী বলেন, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) রেজিস্ট্রেশন ও ছাড়পত্র ছাড়া কেউ ডাক্তার লিখে রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে পারবে না।ইদানিং নগরী ও জেলার বিভিন্ন স্থানে ফার্মেসি বা নিজস্ব চেম্বারে বসে অনেকেই ডাক্তার সেজে রোগীদের সাথে নিয়মিত প্রতারণা করে আসছে। এসব ভুয়া ডাক্তারদের হয়রানি না করতে হাইকোর্ট ৬ মাসের জন্য একটি রিট দিয়েছেন। সে কারণে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব হচ্ছে না। বিএমডিসি কর্তৃপক্ষ আপিল করলে আশা করি ভুয়া ডাক্তারদের রিটটি খারিজ হয়ে যাবে ও তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া যাবে।

উপ-পরিচালক স্থানীয় সরকার) মো. খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায় সমন্বয় সভায় অন্যেদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মুহাম্মদ রেজাউল মাসুদ, জেলা পরিষদের সচিব সাব্বির ইকবাল, সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ আজিজুর রহমান সিদ্দিকী, উপজেলা চেয়ারম্যান এহছানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, আবদুল জব্বার চৌধুরী, মুহাম্মদ আলীশাহ, মাহবুবুল আলম চৌধুরী, মোজাফফর আহমদ, মো. জহিরুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জিয়া আহমেদ সুমন, দীপক কুমার রায়, মোহাম্মদ উল্লাহ, গৌতম বাড়ৈ, আফিয়া আখতার, মোহাম্মদ কামাল হোসেন, মো. আহসান উদ্দিন মুরাদ, আক্তার উন নেছা শিউলী, সহকারী পুলিশ কমিশনার (ইন্টেলিজেন্স) কাজীমুর রশিদ প্রমুখ।

মতামত...