,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামের পটিয়ায় ধর্ষিতা প্রতিবন্ধী কিশোরীর গর্ভপাতের দায়ে নার্স গ্রেফতার

পটিয়া প্রতিনিধি, বিডিনিউজ রিভিউজঃ পটিয়ায় বুদ্ধি প্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে ধর্ষণের ফলে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ার পর তার গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। অবৈধভাবে প্রতিবন্ধীর গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগে নগরীর শুলকবহর এলাকা থেকে ইয়াসমিন আক্তার (৫০) নামের এক নার্সকে গ্রেপ্তার করেছে পটিয়া থানা পুলিশ। গতকাল শনিবার পটিয়া থানা পুলিশ শুলকবহর এলাকার মুন্সি পুকুর পাড় এলাকা থেকে ওই নার্সকে গ্রেফতার করেন। তবে পুলিশ ধর্ষককে গ্রেফতার করতে পারেনি। উপজেলার বড়লিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মরহুম গুরা মিয়ার পুত্র আহাম্মদ নূর (৫৮) বুদ্ধি প্রতিবন্ধী এই কিশোরীকে বিভিন্ন সময় ধর্ষণ করেন। ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি জানাজানি হলে আহম্মদ নূর ও তার পুত্র মো. ফোরকানসহ কিশোরীর পরিবারকে চাপ সৃষ্টি করে নগরীর ওই এলাকায় গোপনে গর্ভপাত করান।

পুলিশ প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বরলিয়া ইউনিয়নে গরিব পরিবারের এক স্কুল ছাত্রীকে (১৩) ফুসলিয়ে দীর্ঘদিন ধর্ষণ করে আসছিল আহমদ নূর নামের ওই ৬ সন্তানের জনক। স্কুল ছাত্রীর পরিবার তার শারীরিক অবস্থা দেখে গত ০২ আগস্ট চিকিৎসকের দ্বারস্থ হলে চিকিৎসক স্কুল ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে। বুদ্ধি প্রতিবন্ধীর মামা নুর কাদের জানান, এ ঘটনায় তারা আইনের আশ্রয় নিচ্ছেন। গত ১২ আগস্ট শুক্রবার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে ধর্ষককে গ্রেফতার করতে না পারলেও গর্ভপাতের দায়ে নার্সকে গ্রেফতার করেন।

পটিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেফায়েত উল্লাহ চৌধুরী বিডিনিউজ রিভিউজকে বলেন, কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা ও পরবর্তীতে চাপ সৃষ্টি করে সন্তান গর্ভপাত করার ঘটনায় থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ দ্রুত ব্যবস্থা নেন। ধর্ষককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে দায়ের করা মামলায় নার্সকে গর্ভপাতের অভিযোগে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

 

মতামত...