,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামের পটিয়ায় ভুয়া এএসআইকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

pশাহেদ আলম, পটিয়া, বিডিনিউজ রিভিউজঃ চট্টগ্রামের পটিয়ায় পুলিশের  ভুয়া এএসআই (উপ-সহকারী পরিদর্শক ) প্বরিচয় দিয়ে বিয়ে করতে এসে পটিয়ায় ধরা খেয়েছেন মো. ইমাম হোমেন প্রকাশ আবির (২৪) নামের এক প্রতারক  ।

রবিবার ২ আক্টোবর সকালে উপজেলার দক্ষিণ ভূর্ষি ইউনিয়নের লোকজন তাকে গ্রেফতার করে পুলিশে সোর্পদ করে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পুলিশের  ভুয়া এএসআই (উপ-সহকারী পরিদর্শক ) প্বরিচয় দানকারী আবির (২৪) সন্দ্বীপ জেলার বাউরিয়া ইউনিয়নের নয়াহাট গ্রামের মিয়া জান হাজীর বাড়ির ডা. মোজাম্মেল হকের পুত্র। এসময় তার কাছ থেকে ছবিযুক্ত পুলিশের একটি ভিজিটিং কার্ড ও পোষাকপরিহিত একটি পাসপোর্ট সাইজের ছবি জব্দ করা হয়। পুলিশ সেজে বিয়ে করতে এসে ধরা পড়ায় এলাকায় বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। সে দীর্ঘদিন ধরে এ ধরনের প্রতারণা কাজে সম্পৃক্ত বলে পুলিশ জানিয়েছে।

আবির পার্বত্য চট্টগ্রাম বান্দরবান সদর থানার উপ-সহকারী পরিদর্শক পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন জেলার বিভিন্ন এলাকায় প্রতারনা করে আসছিল। গত শুক্রবার দক্ষিণ ভূর্ষি ইউনিয়নের গাড়ি চালক আবদুল মালেকের বাড়ি বেড়াতে যায়। মোবাইল ফোনে আবদুল মালেকের কন্যার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক করে সে বিয়ে করার পায়তারা শুরু করে। এক পর্যায়ে সে এলাকার এক যুবককে মারধর করে। এই মারধরের ঘটনায় আরিব পুলিশ পরিচয় দিয়ে পটিয়া থানায় একটি অভিযোগ করেন। তাকে দেখে সন্দেহ হওয়ায় পটিয়া থানার উপ-পরিদর্শক শাহ আলম সরকার বান্দরবান সদর থানার ওসির সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন। আরিব নামে বান্দরবান থানায় কোন এএসআই নেই বলে জানান। রবিবার সকালে প্রতারক আবির পালানোর সময় দক্ষিণ ভূর্ষি ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার মাহবুল আলমসহ এলাকার লোকজন তাকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করে।

পটিয়া থানার উপ-পরিদর্শক শাহ আলম সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এএসআই পরিচয় দিয়ে আবির এই পর্যন্ত অসংখ্য মানুষের সঙ্গে প্রতারনা করেছে। সীতাকুন্ড এলাকার এক ব্যক্তি পুলিশের চাকুরী দেওয়ার কথা বলে সে দেড় লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এই ব্যাপারে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মতামত...