,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামের রাউজানে পুকুরে ডুবে মেধাবী ছাত্রের মৃত্যু

রাউজান সংবাদদাতা, ৪ আগস্ট, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: চট্টগ্রামের রাউজান পৌরসভার সুলতানপুর ৭নং ওয়ার্ডে বৃহস্পতিবার দুপুরে গোসল করতে গিয়ে পুকুরে ডুবে মারা গেছে ফুয়াদ আনোয়ার সামি নামের ১৩ বছর বয়সী এক স্কুল ছাত্র। সে ৭নং ওয়ার্ডের ছৈয়দ আহমদ চৌধুরী বাড়ির সৌদি প্রবাসী সাহাবুদ্দিন উদ্দিন চৌধুরীর ছেলে। সামি রাউজান ইংলিশ স্কুলের ৫ম শ্রেণীর মেধাবি ছাত্র। আপন ফুফার মৃত্যুর মাত্র তিনদিনের মাথায় মারা গেল সে। শিক্ষকরা বলছেন, সামি শুধু তার ক্লাসে নয়, পুরো স্কুলের সেরা ছাত্র। সে ইতিমধ্যে নানাদিকে প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে সবাইকে মুগ্ধ করেছিল।

ঘটনার বিবরণ জানিয়ে তার চাচা পৌরসভার আওয়ামী লীগের সহ–সভাপতি নাঈম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘আমার বোনের জামাতা গহিরা এলাকার বাসিন্দা আবু জাফর গত মঙ্গলবার মারা যান। বুধবার তার দাফন সম্পন্ন হয়। আজ (গতকাল বুধবার) আমার ভাতিজা ফুয়াদ আনোয়ার সামি ও তার মা গহিরায় আমার বোনকে দেখতে যান। সেখান থেকে ফিরে দুপুর তিনটার দিকে সামি বাড়ির সামনে (বাড়ি থেকে পুকুরের দূরত্ব মাত্র একশ ফুট) পুকুরে গোসল করতে যায়। ৭–৮ মিনিট পর পুকুর পাড়ের একটি পাকা বাড়ির ছাদের উপর থেকে হঠাৎ মো. হাসান নামের পাড়ার এক ভাতিজা দেখতে পান সামি পুকুরে হাবুডুবু খাচ্ছে। এরপর দ্রুত বাড়ির ছেলেরা পুকুর থেকে সামিকে উদ্ধার করে প্রথমে সুলতানপুর হাসপাতালে, পরে গহিরা জে কে মেমোরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসকরা সামিকে মৃত ঘোষণা করেন। একইদিন রাত সাড়ে ৯টায় জানাজা নামাজশেষে সামিকে স্থানীয় গোরস্থানে দাফন করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পরিবারের ১ ভাই ও ১ বড় বোনের মধ্যে ফুটফুটে সামি ছিল পরিবারের একমাত্র ছেলে সন্তান। দেখতে সুন্দর চেহারার অধিকারী সামিকে উচ্চ শিক্ষিত করে তোলার স্বপ্নে বিভোর ছিলেন মা–বাবা। হঠাৎ এই আকস্মিক ঘটনায় আকাশ ভেঙে পড়েছে। শোকে হতবিহব্বল হয়ে পড়েছে আত্মীয়–স্বজনসহ প্রতিবেশীরা। সামির মর্মান্তিক মৃত্যুতে স্কুলের শিক্ষক শিক্ষার্থী ও এলাকার মানুষের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

রাউজান ইংলিশ স্কুলের পরিচালক অধ্যাপক তসলিম উদ্দিন বলেন, ‘সামি অসম্ভব রকমের ভদ্র ও ভালো ছাত্র। সে ক্লাসের ফার্স্ট বয়।’ আরেক পরিচালক ছৈয়দ ইউসুফ আমীন বলেন, ‘সামি খুব সৃজনশীল ছাত্র ছিল। সে শুধু তার ক্লাসের নয়, সকল ক্লাসের সেরা ছাত্র ছিল সামি। সে অনুষ্ঠান উপস্থাপনা, গান, নৃত্য, ডিবেট, কৌতুক, স্কুল নাটকের ভালো অভিনেতা এবং ক্লাসের লিডার ছিল। আদব, সম্মান, সৌজন্য, সত্যবাদিতাসহ অসাধারণ প্রতিভার গুনের অধিকারি ছিল সে। এক কথায় সকল গুণে গুণান্বিত ছাত্র ছিল সামি। তার এমন মৃত্যুতে সবার হৃদয় ভারাক্রান্ত হয়েছে।’

মতামত...