,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীদের নির্ঘুম প্রচার

bnr ad 250x70 1a

লোহাগাড়া সংবাদদাতা, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃচট্টগ্রামের লোহাগাড়ায়  আগামী ৪ জুন ৬ ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সর্বশেষ প্রচারণায়  প্রার্থীরা ব্যস্ত সময় পার করছেন। ভোটারদের দাবি সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যাপারে প্রশাসন নিরপেক্ষ ভূমিকা । সন্ত্রাসীদের দাপটে তাদের ভোটাধিকার যাতে নষ্ট না হয় ।  অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন প্রত্যাশা করেন জনগণ ।

 জানা যায়, লোহাগাড়ায় আওয়ামী লীগের মোট ৬ জন প্রার্থী যথাক্রমে চুনতিতে জয়নাল আবেদীন, বড়হাতিয়ায় সাজেদুর রহমান চৌধুরী, পদুয়ায় আবছার আহমদ, চরম্বায় মাষ্টার শফিকুর রহমান, কলাউজানে এম ওয়াহেদ ও পুটিবিলায় হাজী ইউনুস প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অপরদিকে পদুয়ায় জসিম উদ্দিন, চরম্বায় শাহ আলম, কলাউজানে ফজলে এলাহী চৌধুরী, পুটিবিলায় ফরিদুল আলম ও চুনতিতে নূর মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ ধানে শীষ নিয়ে লড়ছেন। রাজনৈতিকভাবে আহমদ কবির জাতীয় পার্টির প্রার্থী হয়েছেন। এছাড়া পুটিবিলার চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, চরম্বার চেয়ারম্যান সাদত উল্লাহ ও বড়হাতিয়ার চেয়ারম্যান এমডি জুনাইদ স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মাঠে রয়েছেন। পদুয়ায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে দু’জন প্রার্থী যথাক্রমে হুমায়ুন কবির বাদশা ও জহির উদ্দিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ প্রতিনিধি ৩১ মে সকালে বিএনপি প্রার্থী জসিম উদ্দিনের সাথে প্রথমে কথা বলেন, তিনি দাবি করছেন তার ইউনিয়নে ৫টি ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র রয়েছে। অনেকে তার নেতাকর্মীদেরকে হুমকি দিচ্ছেন। আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবছার আহমদ জানান, পদুয়ায় নির্বাচনে কারচুপির কোন আশংকা নেই। তবে নৌকার প্রতিপক্ষ বিদ্রোহী প্রার্থীরা নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন। নাগরিক কমিটি মনোনীত প্রার্থী এডভোকেট হুমায়ুন কবির বাদশা জানিয়েছেন, তারা অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন প্রত্যাশা করেন। ফলাফল যাই হোক নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে তিনি তা মেনে নেবেন। চরম্বায় নৌকা প্রার্থী মাষ্টার শফিকুর রহমান বলেছেন তার ইউনিয়নে গত শুক্রবার থেকে বহিরাগত অনেক লোক ঘুরাফেরা করছেন। তারা একটি মৌলবাদী সংগঠনের নেতাকর্মী বলে জানান তিনি। এ ব্যাপারে প্রশাসনকে যথাযথভাবে অবহিত করা হয়েছে। কলাউজানের স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ শাহাব উদ্দিন জানিয়েছেন, তার বিজয়ের সম্ভাবনা শতভাগ। যদি প্রশাসন নিরপেক্ষ থাকে। পুটিবিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থী ফরিদুল আলম জানান, তার নেতাকর্মীদেরকে হুমকি-ধমকি দেয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে তিনি নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে লিখিতভাবে প্রশাসনকে জানিয়েছেন। চুনতির চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন জনু জানিয়েছেন, চকরিয়া থেকে বহিরাগত লোকজন তার ইউনিয়নে অনুপ্রবেশ করেছে। এ ব্যাপারে তিনি আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় জানিয়েছেন। কয়েকজন মহিলা মেম্বার ও পুরুষ মেম্বারের সাথে আলাপ করে জানা গেল, নির্বাচনকে ঘিরে এলাকায় উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। তারা সবাই জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। এবার দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হওয়ায় এলাকায় নির্বাচনের নতুন আমেজ সৃষ্টি হয়েছে। ৩১ মে উপজেলা নির্বাচন অফিসার আল মামুন জানিয়েছেন, যে কোন মূল্যে নির্বাচনকে অর্থবহ করা হবে। নির্বাচনকে অর্থবহ ও নিরপেক্ষ করতে যা যা প্রয়োজন তা করা হবে। এলাকার ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা গেল, তারা দলের চাইতে প্রার্থীর যোগ্যতা বিচার করে ভোট দেবেন। কোন কেন্দ্রে গোলযোগ হলে অনেকে ভোটকেন্দ্রে না যাওয়ার কথা বলেছেন। এবারের নির্বাচনে মহিলা ভোটাররা অন্যতম ফলাফল নিয়ামক হবে বলে সরেজমিনে জানা যায়। তারা যার পক্ষে অবস্থান নেন, তিনিই আগামী দিনে জনপ্রতিনিধি হিসেবে লোহাগাড়ায় বিজয়ী হবেন বলে জানা গেছে।

মতামত...