,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে যুবলীগ কর্মী নিহত

kমো. নাজিম উদ্দিন, দক্ষিন চট্টগ্রাম সংবাদদাতা ,বিডিনিউজ রিভিউজঃ  চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার কঞ্চনা ইউনিয়নের বকশির খীল এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে জহিরুল হাসান  (৪০) নামের এক যুবলীগ কর্মী নিহত হয়েছেন।নিহত হাসান এলাকার মৃত কবির আহমদের ছেলে।

 শনিবার  (১০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।

সাতকানিয়া থানার এস আই জুলুশ খাঁন পাঠান  ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, হাসান বাহির থেকে সন্ধ্যার সময় বাড়ি ফেরার পথে বাড়ির কাছাকাছি স্থানে পৌঁছালে পূর্ব থেকে ওঁৎপেতে থাকা দূর্বৃত্তরা তাঁর পিছন থেকে কয়েক রাউন্ড গুলি পালিয়ে যায়। হাসান পিঠে গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রায়সুল ইসলাম তাঁকে মৃত ঘোষনা করেন।
উপজেলা আওয়ামীলীগ এ হত্যাকান্ডকে জঘন্য এবং বর্বরোচিত বলে মন্তব্য করেন। সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামলীগ সাধারন সম্পাদক কুতুব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি এ হত্যাকান্ড জামায়াত শিবির ঘটিয়েছে। কারন কিছুদিন কাঞ্চনা এলাকায় জামায়াত শিবিরের গোপন বৈঠক থেকে পুলিশ বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করলে জামায়াত শিবির ক্যাডাররা হাসানকে দোষারোপ করে আসছিল। তাদের ধারান ছিল হাসানই তাদেরকে ধরিয়ে দিয়েছেন।
আবার অনেকে বলেছেন ভিন্ন কথা যেহেতু নিহত হাসান এলাকার মোহাম্মদ সালামের গ্রুপের রাজনীতি করতেন। সে কারনে স্থানীয় রাজনৈতিক বিরোধ থেকে এ হত্যকান্ড ঘটতে পারে।
যোগাযোগ করা হলে কাঞ্চনা ইউপি চেয়ারম্যান রমজান আলীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সারাদিন আমি চাল বিতরনে ব্যস্থ ছিলাম, এ ধরনের জঘন্য কাজ কারা করেছে আল্লাহ ভাল জানেন।
মোহাম্মদ সালাম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আমিসহ মারুফ, আলম ও হাসানকে বিভিন্ন নম্বর থেকে মোবাইলে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিল। ডাকাত ছগিরসহ জামায়াত শিবিরের একটি গ্রুপ এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে।
যোগাযোগ করা হলে সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ফরিদ উদ্দিন খন্দকার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স পাঠানা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মতামত...