,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামে ছাত্রলীগ নেতাকে মারধরে ঘটনায় ওসি মঈনুলকে প্রত্যাহার

oc moinulনিজস্ব প্রতিবেদক,  বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ চট্টগ্রাম , নগরীর একটি আবাসিক হেটেল থেকে নারীসহ এক ছাত্রলীগ নেতাকে আটকের পর মারধরের ঘটনায় অবশেষে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ সদরঘাট থানার ওসি মঈনুল ইসলাম ভূঁইয়াকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে সিএমপি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সদ্য বিদায়ী সিএমপি কমিশনার আব্দুল জলিল মন্ডল এ আদেশে দেন।

টেলিফোনে  চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার  আব্দুল জলিল মন্ডল বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমকে ওসি মাঈনুল ইসলাম ভূঁইয়াকে প্রত্যাহার করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানাগেছে, গত ১৯ মার্চ শনিবার বিকালে সদরঘাট থানার একটি আবাসিক হোটেল থেকে নারীসহ ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় উপ-পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ও সিটি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা আব্দুর রহিম জিল্লুকে আটক করে পুলিশ। এসময় পুলিশের সাথে বির্তকে জড়িয়ে পড়ায় পুলিশ জিল্লুরকে মারধর করে নাম ফাটিয়ে দেয় সদরঘাট থানার ওসি।

জিল্লু দাবী করেন, নিজের বিবাহিত স্ত্রীকে নিয়ে হোটেল কক্ষে অবস্থানকালে ওসি মাইনুল কোন কারণ ছাড়াই তাকে মারধর করে থানায় নিয়ে যায়। এসময় ওসিকে ভাই সম্মোধন করে ছাত্রলীগ নেতা পরিচয় দিলে তিনি ক্ষেপে গিয়ে মারধর করেন।

পরে এনিয়ে তুলকালাম ঘটনা ঘটে যায়। শতাধিক ছাত্রলীগ নেতাকর্মী সেদিন সদরঘাট থানা ঘেরাও করে পুলিশের র‌্যাকার এবং ক্যান্টিন ভাঙচুর করে জিল্লুরকে ছেড়ে দিতে বাধ্য করে। এর পর থেকে নগর ছাত্রলীগ ওসি মাঈনুলের অপসারণের দাবীতে নগরীতে সভা সমাবেশ করে আসছে।

বুধবার বিকালে আক্রান্ত ছাত্রলীগ নেতা জিল্লুর বাদী হয়ে ওসি মাঈনুলসহ ৪ পুলিশের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্তের জন্য পুলিশের কোতোয়ালি জোনের সহকারি কমিশনার মো.মঈনউদ্দিনকে নির্দেশ দেন।

মামলা দায়েরের একদিনের মাথায় সিএমপি কর্তৃপক্ষ আজ ওসি মাঈনুল ইসলামকে প্রত্যাহার করে নেন।

মতামত...