,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামে জানাজায় এক কাতারে মহিউদ্দিন ও লতিফ

Latif-mohiনিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা , বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম:: বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি বিকৃতির ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিরোধে জড়িয়ে পড়া নগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দীন চৌধুরী এবং বন্দর পতেঙ্গা আসনের সংসদ সদস্য এম এ লতিফ শুক্রবার  রাতে এক কাতারে দাঁড়িয়ে জানাজায় অংশ নিয়েছেন। লালদীঘি মাঠে অনুষ্ঠিত সাবেক লায়ন্স গভর্নর আব্দুল গাফ্‌ফার দোভাযের জানাজায় এই দুই নেতা একই কাতারে দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করলে ও তাদের মধ্যে কোন কথা হয়নি। এই সময় সিটি মেয়র ও নগর আওয়ামীলীগ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীনসহ নগরীর বিশিষ্ট জনদের অনেকেই জানাজায় উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশ, বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃতিকে কেন্দ্র করে এবিএম মহিউদ্দীন চৌধুরী এবং এম এ লতিফ এমপির বিরোধ সম্প্রতি তুঙ্গে ওঠে। মহিউদ্দীন চৌধুরী লালদীঘি মাঠে সমাবেশ করে লতিফকে ওই মাঠে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন। লতিফকে চলাফেরায় সতর্কও করে দেন। লতিফের উপর কোন হামলা হলে বা লতিফকে আঘাত করা হলে মহিউদ্দিন চৌধুরী হুকুমের আসামি হতে রাজি আছেন বলেও ঘোষণা দেন। এসব হুমকির প্রেক্ষিতে এম পি লতিফ ইতোমধ্যে  ১৬ থানায় জিডি এবং প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন।

আওয়ামীলীগের একজন নেতা জানান, দুই নেতা একই কাতারে জানাজার নামাজ আদায় করলেও কেউ কারও সঙ্গে কথাও বলেননি, হাতও মেলাননি। এমনকি মুখোমুখিও হননি।

 

বি এন আর/ ০০১৬০০২০২০/০০০৯৯/এন

মতামত...