,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামে ত্রিভূজ প্রেমের বলি ভার্সিটি ছাত্রী মুন্নীঃ ঘাতক প্রেমিকের কোর্টে জবানবন্দি

aচট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড ইকোপার্কের পোর্ট সিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী মুন্নী আক্তার হত্যার রহস্য উন্মোচিত হয়েছে। ত্রিভূজ প্রেমের জের ধরে মুন্নীকে তার এক প্রেমিক রমজান আলী রাহাত (২৮) খুন করেন।

গত বুধবার রাতে পুলিশ এ হত্যাকাণ্ডে সন্দেহভাজন হিসেবে রাহাতকে আটক করে। এরপর তিনি আদালতে এ খুনের বিষয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সীতাকুণ্ড থানার এসআই মো. কামাল উদ্দিন জানান, নগরীর পোর্ট কলোনী থেকে মুন্নীর প্রেমিক রমজান আলী রাহাতকে আটক করা হয়।

 পরে পুলিশকে তিনি জানান, প্রেম থাকা অবস্থায় মুন্নী অন্য এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এছাড়া নিজের ঘনিষ্ঠ বান্ধবীর প্রেমিককেও মুন্নী প্রস্তাব দেন, কিন্তু তা প্রত্যাখ্যাত হয়। প্রতিশোধ নিতে মুন্নী তার ওই বান্ধবী ও তার প্রেমিকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের কিছু ছবি প্রকাশ করে দেন।

এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে বান্ধবীর ওই প্রেমিক মুন্নীকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। তার সঙ্গে মুন্নীর যুক্ত হন মুন্নীর আরও প্রেমিক এবং দুই ঘনিষ্ঠ বান্ধবী। তারা গত ১৩ মে মুন্নীকে কৌশলে সীতাকুণ্ড ইকোপার্কে নিয়ে যায়। সন্ধ্যার দিকে পাহাড়ের নির্জনস্থানে নিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে তাকে হত্যা করে লাশ ফেলে চলে যায় তারা।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাহাত চট্টগ্রাম চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুন্সি মুশিয়ার রহমানের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

 

মতামত...