,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামে পরীক্ষার্থী ১ লাখ ৬১ হাজার, ২০ নভেম্বর থেকে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজঃদেশের সর্ববৃহৎ পাবলিক পরীক্ষা খ্যাত প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আগামী ২০ নভেম্বর থেকে। শিক্ষা জীবনের প্রথম এ পাবলিক পরীক্ষায় অংশ নিতে এখন মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছে ৫ম শ্রেণির খুদে পরীক্ষার্থীরা। সারাদেশের ত্রিশ লাখেরও বেশি পরীক্ষার্থীর সাথে চট্টগ্রাম জেলার (মহানগরের ৬ থানা ও ১৪ উপজেলা) ১ লাখ ৬১ হাজার ৪৬৪ জন খুদে পরীক্ষার্থী এখন এ পরীক্ষায় বসার অপেক্ষায়। চট্টগ্রামের মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৭৪ হাজার ৭৫৩ জন ছাত্র এবং ৮৬ হাজার ৭১১ জন ছাত্রী। এ হিসেবে ছেলেদের তুলনায় এবার মেয়ে পরীক্ষার্থী ১১ হাজার ৯৫৮ জন বেশি। চট্টগ্রাম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
জেলার সামগ্রিক চিত্রেই নয়, পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বিবেচনায় প্রতিটি থানা এবং উপজেলায়ও ছেলেদের তুলনায় এগিয়ে রয়েছে মেয়েরা। অর্থাৎ প্রায় সবকয়টি থানা ও উপজেলাতে ছেলে পরীক্ষার্থীর তুলনায় মেয়ে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বেশি। এ বছরের সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের সংখ্যা বিশ্লেষণ করে এ চিত্র পাওয়া গেছে। শিক্ষার ক্ষেত্রে মেয়েদের অংশগ্রহণ বৃদ্ধির বিষয়টি ইতিবাচকই দেখছেন সংশ্লিষ্টরা। অভিভাবকদের সামাজিক সচেতনতা, পড়াশোনার ক্ষেত্রে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি ও সরকারের পক্ষ থেকে শিক্ষায় বিশেষ গুরুত্বারোপের ফলে এ ধরনের অগ্রগতি সম্ভব হয়েছে বলে মনে করেন চট্টগ্রাম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা। তিনি বলেন, এক সময় পারিবারিক অসচ্ছলতা এবং নানা কুসংস্কারের কারণে পড়াশোনার ক্ষেত্রে মেয়েদের পিছিয়ে পড়ার হারই ছিল বেশি। কিন্তু এখন এ চিত্র অনেকটাই পাল্টে গেছে। বিভিন্ন পরীক্ষায় ছেলেদের তুলনায় এখন মেয়েদের অংশগ্রহণ বেড়েছে। এটা দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার জন্য আশাব্যঞ্জক বলেও অভিমত এই জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার।
জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয় জানায়, এবার জেলার মোট ৪ হাজার ৩২টি প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনীতে অংশ নিচ্ছে শিক্ষার্থীরা। এর মধ্যে সরকারি বিদ্যালয়ের সংখ্যা ২ হাজার ২০৬টি। বাকি ১ হাজার ২৬টি কিন্ডারগার্টেন পর্যায়ের প্রতিষ্ঠান। এবার জেলায় মোট ৩৪৬টি পরীক্ষাকেন্দ্রে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে সমাপনী পরীক্ষাকেন্দ্র ৩১৯টি। আর এবতেদায়ী পরীক্ষাকেন্দ্র ২৭টি। প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ের তথ্য মতে- নগরীর ডবলমুরিং থানায় ১০ হাজার ১২৫ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৪ হাজার ৭৬০ জন ছাত্র ও ৫ হাজার ৩৫৬ ছাত্রী। পাহাড়তলী থানায় ৬ হাজার ৯০৫ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩ হাজার ২৩৪ জন ছাত্র ও ৩ হাজার ৬৭১ জন ছাত্রী, বন্দর থানায় ৭ হাজার ৯৮৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩ হাজার ৯০০ জন ছাত্র ও ৪ হাজার ৮৩ জন ছাত্রী, পাঁচলাইশ থানায় ১০ হাজার ৮১ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৪ হাজার ৭৯১ জন ছাত্র ও ৫ হাজার ২৯০ জন ছাত্রী, কোতোয়ালী থানায় ৭ হাজার পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩ হাজার ৩৪৫ জন ছাত্র ও ৩ হাজার ৬৫৫ জন ছাত্রী এবং চান্দগাঁও থানায় ৮ হাজার ৭৮৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৪ হাজার ২২৪ জন ছাত্র ও ৪ হাজার ৫৬৪ জন ছাত্রী এবার প্রাথমিক সমাপনীতে অংশ নিচ্ছে। একইভাবে ১৪ উপজেলাতেও মোট পরীক্ষার্থীদের মাঝে মেয়েদের সংখ্যাই বেশি।

মতামত...