,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামে প্রেমিকার বাবা-ভাইয়ের প্রহারে প্রেমিক খুন

policeসীতাকুণ্ড সংবাদ দাতাঃ  সীতাকুণ্ড উপজেলার সুলতানা মন্দির এলাকায় প্রেমিকার বাবা ও ভাইয়ের পিটুনিতে প্রেমিকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ আটক করেছে প্রেমিকার বাবা হোসেন আলী (৪৫) ও তার ছোট ভাই শান্তকে (২৩)। নিহত প্রেমিকের নাম মোহাম্মদ মাশরাফি (২৫)। সে ভোলা জেলার লালমোহন থানার চরলক্ষী এলাকার ওমর আলী শিকদারের ছেলে। সীতাকুণ্ডের কুমিরায় জিপিএইচ ইস্পাত কারখানায় একজন কনট্রাকটারের আওতায় রাজমিস্ত্রির কাজ করত সে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কুমিরা সুলতানা মন্দির এলাকায় জিপিএইচ ইস্পাত কারখানার শ্রমিক মাশরাফি স্থানীয় হোসেন আলীর এক যুবতী মেয়ের সাথে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এতে করে মাশরাফি তাদের বাড়িতে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করত।  মঙ্গলবার রাতে মাশরাফি মেয়েটির বাড়িতে বরাবরের মত বেড়াতে যায়। কিন্তু বিষয়টি মেয়েটির বাবা ও ভাই কখনো ভালো চোখে দেখেনি। ওই দিন প্রেমিকার সাথে দেখা করার সময় প্রেমিকার ভাই শান্ত মাশরাফিকে আটক করে মারধর শুরু করে। খবর পেয়ে বাবা হোসেনও এসে তাকে পিটুনি দেয়। এক পর্যায়ে সে অজ্ঞান হয়ে যায়। পার্শ্ববর্তী মানুষরা ঘটনাস্থলে আসলে হোসেন ও শাস্ত তাদের বলেন চুরি করতে আসায় তাকে পিটুনি দেয়া হয়েছে। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। স্থানীয় মেম্বার আবদুল্লা আল মামুন আজাদীকে বলেন, তিনি সকালে ঘটনা শুনে ঘটাস্থলে যান। এসময় তিনি ওই ঘরে গিয়ে দেখেন সেখানে চুরির কোন লক্ষণ নেই বলে দাবি করেন তিনি। তবে বিষয়টি কেন হয়েছে তা তিনি সঠিকভাবে বলতে পারে না বলে জানান। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি জানান, মেয়ের সাথে দেখা করার কারণে তার বাবা ও ভাই মিলে ওই যুবককে পিটিয়েছে। এতেই সে মারা যেতে পারে বলে দাবি করেন তিনি। সীতাকুণ্ড মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এস আই) ইকবাল হোসেন জানান, সুলতানা মন্দির এলাকায় হোসেন আলীর এক যুবতী মেয়ের সাথে প্রেম করতো মাশরাফি। মঙ্গলবার রাতে ওই মেয়ের সাথে দেখা করার সময় তার ভাই তা টের পেয়ে যায়। পরবর্তীতে ভাই ও বাবা মিলে তাকে পিটুনি দিলে সে অজ্ঞান হয়ে যায়। স্থানীয়রা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় বাবা ও ভাইকে আটক করে কোর্টের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এই বিষয়ে সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইফতেখার হাসান জানান , ঘটনাটি প্রেম সংক্রান্ত নাকি অন্য কিছু তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই ঘটনায় নিহতের ভাই বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন বলে দাবি করেন তিনি।

বি এন আর/০০১৬০০২০২৪/০০০১৫৩/এন

মতামত...