,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামে যৌন নীপিড়নের পর শিশু ভাগিনা মামার হাতে খুন

m

ভাগিনার ঘাতক মামা জুয়েল

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: চট্টগ্রামের নগরীর হালিশহর থানার মধ্য রামপুরা এলাকায় নিজের কুকীর্তি জানাজানি হওয়ার ভয়ে আপন ভাগিনাকে খুন করলো পাষণ্ড মামা।

রোববার ২১ নভেম্বর  রাতে ভাগিনা ইয়াছিনকে (৭) দেওয়ালের সঙ্গে মাথা ঠুকে নির্মম ভাবে খুন করে মামা মো. জুয়েল (৪০)।

পুলিশ মামা জুয়েলকে গ্রেফতার করেছে। ইয়াছিন আনন্দপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র।

হালিশহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রণব চৌধুরী  জানান, ইয়াছিনের মামা জুয়েল একজন মাদকাসক্ত এবং থানার তালিকাভুক্ত পকেটমার। তার বিরুদ্ধে আগেও হত্যা মামলা আছে। মা বাবা মারা যাওয়ার পর ইয়াছিন তার ভিক্ষুক নানী ও মামার সঙ্গে মধ্য রামপুরার ধোপাপাড়ায় চীন সুলতানের বস্তিতে থাকত। ভাগিনা ইয়াছিন সবসময় মামার সাথে থাকত। আর মামা প্রায়শই যৌন নীপিড়ন করতো ইয়াছিনকে। রোববার রাতে ইয়াছিন ভয় দেখায় যে জুয়েলের কুকীর্তি ফাঁস করে দেবে নানীর কাছে। কথা শুনে ভয় পেয়ে যায় জুয়েল।

রোববার রাত সাড়ে ১২টার দিকে জুয়েল বস্তির পেছনে পরিত্যক্ত একটি জায়গায় ইয়াছিনকে নিয়ে যায়। ঐ জায়গায় জুয়েল সবসময় মাদক সেবন করতো। তারপর মুখ চেপে ধরে দেওয়ালের সঙ্গে মাথা ঠুকে তাকে খুন করে সেখানে লতাপাতা দিয়ে ঢেকে রেখে চলে আসে। হত্যাকাণ্ডের পর বাসায় ফিরে জুয়েলকে গোসল করতে দেখে প্রতিবেশীরা। তারপর জুয়েল নিজের ঘরে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। গভীর রাতে ইয়াছিনের নানী তাকে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। এসময় জুয়েলকে জিজ্ঞেস করা হলে সে কিছুই ?জানে না বলে জানায়। স্থানীয় লোকজন খোঁজাখুঁজি করে বস্তির পেছনে পরিত্যক্ত জায়গায় গিয়ে শিশু ইয়াছিনের রক্তাক্ত মরদেহ পায়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

মতামত...