,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রামে স্কুল ছাত্র অপহরণ করে ১৯ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি ৪ গ্রেপ্তার

kনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ চট্টগ্রাম নগরীর মির্জারপুল এলাকা থেকে নবম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রকে অপহরণের ঘটনায় জড়িত ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ। গত সোমবার দিবাগত রাতে ফটিকছড়ি ও নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতরা হচ্ছেন রাউজান পলোয়ানপাড়ার মৃত ইলিয়াছের ছেলে হাফেজ মো. মহিউদ্দিন হাসান (৩৫), ফটিকছড়ি তকিরহাটের আবদুল মান্নান চৌধুরীর ছেলে মো. রাশেদুল হাসান (৩০), একই এলাকার মৃত আবুল ফয়েজের ছেলে মো. নজরুল ইসলাম রোহান (২৮) এবং ভোলা জেলার লালমোহন থানার ইলিশা খাঁ বাড়ির মো. সিরাজুল ইসলামের ছেলে মো. সাইফুল খান রানা।
মঙ্গলবার তাদের আদালতে হাজির করা হলে মহিউদ্দিন হাসান  ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল কাদেরের আদালতে ও রাশেদুল হাসান ম্যাজিস্ট্রেট হারুনুর রশীদ এর আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। পাঁচলাইশ জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম জানান, গত ৮ নভেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ধৃত মহিউদ্দিন হাসানের নেতৃত্বে একদল পেশাদার অপহরণকারী নতুনকুড়ি আইডিয়াল স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র মো. জায়েদ বিন ইদ্রিস নাহিনকে (১৬) অপহরণ করে। অপহরণকারীরা পরে নাহিনের মায়ের মুঠোফোনে কল করে ১৯ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। অপহরণের ঘটনায় নাহিনের মা কাজী নিলুফার আক্তার বাদী হয়ে পাঁচলাইশ থানায় পরদিন একটি মামলা (নং ০৯(১১)১৬) দায়ের করেন।

পুলিশ অপহরণের চতুর্থদিনে গত ১১ নভেম্বর ফটিকছড়ির দুর্গম এলাকা থেকে নাহিনকে উদ্ধার করে।
পাঁচলাইশ জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘উদ্ধারের পর নাহিনের দেওয়া তথ্যের পাশাপাশি ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে অপহরণকারীদের সনাক্ত করা হয়। এবং ফটিকছড়ি ও নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে আটক করা হয়।
সহকারী পুলিশ কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম আসামীদের বরাত দিয়ে বলেন, নাহিনকে অপহরণের মূল পরিকল্পনাকারী ছিল মহিউদ্দিন হাসান। সে তার বন্ধু রাশেদের মাধ্যমে পেশাদার অপহরণকারী দলের প্রধান নজরুল ইসলামসহ অন্যান্য অপহরণকারীদের সাথে যোগাযোগ করে। মহিউদ্দিন অপহরণকারীদের সাথে মুক্তিপণ হিসেবে আদায়কৃত টাকার ৩৫ ভাগ টাকা অপহরণকারীদের দিয়ে দিবে বলে একটি চুক্তিও করে এবং চুক্তি অনুযায়ী নজরুলকে অগ্রিম সাড়ে ১৮ হাজার টাকা দিয়ে দেয়।

মতামত...