,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রাম- কক্সবাজার আঞ্চলিক মহাসড়ক নির্মাণ কাজ শুরু

কক্সবাজার সংবাদ দাতা, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ বৃহত্তর চট্টগ্রামের উপকুলীর বাসিন্দাদের স্বপ্ন বাস্তবে রুপ পেতে যাচ্ছে। কক্সবাজারের চকরিয়া ও পেকুয়া উপকূলীয়  দু’উপজেলার উপর দিয়ে ১৮ কিলোমিটার  চট্টগ্রাম- কক্সবাজার আঞ্চলিক মহাসড়ক নির্মাণ কাজ শুরু হওয়ায় এ এলাকায় উন্নয়নের অপার সম্ভাবনার দার উম্মোচিত হল।
জানা গেছে, সড়ক ও জনপথ বিভাগ ১৩ কোটি ১৫ লাখ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে আঞ্চলিক এ মহাসড়ক নির্মাণ শুরু করছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন  করছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ম্যাক ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড।

এ মহা সড়ক নিরমান শেষ হলে পর্যটন নগরী  কক্সবাজার ও  মহেশ খালীর নির্মাণাধীন কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে যোগাযোগে নতুন দিগন্তের সূচনা করবে আর   অবহেলিত উপকূলীয় অঞ্চল গুলোতে  উন্নত জিবনের ছোঁয়া নিশ্চিত হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে ।
আঞ্চলিক মহাসড়ক নির্মাণ কাজ শেষbnr হলে পিছিয়ে পড়া এই অঞ্চলের কৃষকরা প্রতিবছর জমিতে উৎপাদিত ফসল সহজে পরিবহণ  করে  চট্টগ্রাম, কক্সবাজারসহ দেশের শহর অঞ্চলে বিক্রি করে প্রচুর মুনাফা অর্জন করতে পারবে । এ  আঞ্চলিক মহাসড়কটি নির্মাণ কাজ শেষ হলে চকরিয়া, পেকুয়া ও মহেশখালী ও বাঁশখালি  উপজেলার উপকূলীয় এলাকার  মানুষের ভাগ্যে  ইতিবাচক পরিবর্তনের সম্ভাবনা ।
কক্সবাজার সড়ক বিভাগ সুত্র জানায়, টেন্ডার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ম্যাক ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড চলতি বছরের ৭ জানুয়ারি ওয়ার্ক অর্ডার পেয়েই প্রাথমিক ধাপের উন্নয়ন কাজ শুরু করেছে। চলতি মাসেই শুরু হবে প্রকল্পের মূল উন্নয়ন কাজ। আর চলতি বছরের জুন মাস নাগাদ  প্রকল্পের কাজ সমাপ্ত  হবে।
জানা গেছে, আঞ্চলিক মহাসড়কের ১৮ কিলোমিটার এলাকার মধ্যে রয়েছে,  চকরিয়া উপজেলার পূর্ব বড়ভেওলা ইউনিয়নের ঈদমনি লালব্রিজ থেকে পেকুয়া সদর হয়ে টইটং সেতু পর্যন্ত সড়কের উন্নয়ন ।
কক্সবাজার সড়ক বিভাগের  নির্বাহী প্রকৌশলী রানাপ্রিয় বডুয়া বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমকেবলেন,   বর্তমান সরকার মাতারবাড়ি তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ কক্সবাজার জেলার উপকূলীয় অঞ্চলের অনেকগুলো মাদার(বড়) উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এসব উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে সহজে যাতায়াতের জন্য আঞ্চলিক মহাসড়কটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ কারণেই সড়ক বিভাগ সরকারের নির্দেশে আঞ্চলিক মহাসড়কটি সম্প্রসারণ ও নির্মাণের জন্য উদ্যোগ নেয়।

সড়ক বিভাগ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে শতভাগ স্বচ্ছতার মাধ্যমে নির্মাণ কাজ আদায় করার লক্ষে নিয়মিত মনিটরিং করছে।

 

বি এন আর/০০১৬০০৩০০১৫/০০০২৫২/পি

 

মতামত...