,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন রবিবার

নাছির মীর, ১১ফেব্রুয়ারী, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতি নির্বাচন রবিবার। শেষ মুহূর্তের শ্বাসরুদ্ধকর প্রচারণা চালাচ্ছেন প্রার্থীরা। ৫ সদস্যের নির্বাচন কমিশনও নির্বাচনের যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। এখন অপেক্ষা শুধু ভোট গ্রহণের। ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে রোববার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটানা। ভোটার সংখ্যা ৩ হাজার ৮০১ জন।

শুক্রবার বন্ধের দিনে শেষ মুহুরতের ঘরোয়া প্রচারণা ও নির্বাচনের হিসেব নিকাশে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা।  নির্বাচন আইনজীবী সমিতির নির্বাচন কমিশনার ও আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক জানান, উৎসবমুখর পরিবেশে আইনজীবী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠানে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে ইতোমধ্যে। এবারও অন্যান্যবারের মতো তিনটি প্যানেল মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় থাকছে। তবে, গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতির ব্যানারে এবার আইনজীবীদের আরেকটি সংগঠন সম্পাদকীয় ও একটি সদস্য পদসহ দুইটি পদে নির্বাচনে অবতীর্ণ হয়েছে।

আওয়ামী লীগ সমর্থিত মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ (সমন্বয়), বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদ, স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও গণতন্ত্র রক্ষার স্লোগান নিয়ে বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত আইনজীবী ঐক্য পরিষদ এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী ও দলীয় প্রভাবমুক্ত সমমনা আইনজীবী সংসদ।

সমন্বয় পরিষদ রতন-হানিফ-ইয়াছিন, ঐক্য বদরুল-নাজিম-হাসান পরিষদ ও সমমনা রাসেল-কামাল- জুয়েল পরিষদ ব্যানারে নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হচ্ছে।

চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতি নির্বাচনে ভোটারা জানান, নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থীদের মধ্যে জোর প্রতিদ্বন্দ্বিতা হতে পারে। তবে দু’একটি পদে ত্রিমুখী প্রতিদ্বন্দ্বিতার সম্ভাবনা থাকছে।

সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন সমন্বয় পরিষদের এডভোকেট রতন কুমার রায় ও মোহাম্মদ আবু হানিফ, ঐক্য পরিষদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে এএসএম বদরুল আনোয়ার ও মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন চৌধুরী, সমমনার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির রাসেল ও সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন। এবার সভাপতি সাধারণ সম্পাদক পদসহ গুরুত্বপূর্ণ ৯ টি সম্পাদকীয় পদের জন্য ২৫ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অপরদিকে, ১০টি নির্বাহী সদস্যের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ২২ প্রার্থী। ১০ টি সদস্যপদসহ ১৯ পদে মোট ৪৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সমন্বয় পরিষদ ও ঐক্য পরিষদ ১৯ টি পদের সবকটিতে প্রার্থী দিয়েছে। সমমনা সংসদ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকপদসহ ৫ টি সম্পাদকীয় পদ ও একটি নির্বাহী সদস্য পদে প্রার্থী দিয়েছে। বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতি প্রথমবারের মতো প্রার্থী দিয়েছে। এ প্যানেল অর্থ সম্পাদক পদ ও সদস্যপদে একজন করে প্রার্থী দিয়েছে। এছাড়া সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে একজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

আইনজীবী সমিতির ৫ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচনী কর্মকর্তাগণ এবারের নির্বাচনী প্রচারণায় গঠণতন্ত্র মতে ব্যাপক নজরদারি করছেন। এবার পোস্টার, ফেস্টুন, মিছিল- স্লোগান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এমনকি প্যানেলগুলো এককভাবে নির্বাচনী পরিচিতি সভার বদলে নির্বাচনী কর্মকর্তাদের তদারকিতে যৌথভাবে প্যানেল পরিচিতি করেছে। কয়েকদিন আগে একই মঞ্চে, একই সময়ে অনুষ্ঠিত ওই পরিচিতি সভায় নিজ নিজ প্যানেলের পক্ষে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী বক্তব্য দিয়েছেন।

একক প্যানেল পরিচিতি সভায় সব ধরনের খাবার বা প্যাকেট প্রদান নিষিদ্ধ করেছে সমিতি। মুখ্য নির্বাচনী কর্মকর্তা ফেরদৌছ আহমদের নেতৃত্বে সমিতির ৫ সদস্যবিশিষ্ট নির্বাচনী কর্মকর্তাগণ কোন প্রার্থী আচরণবিধি লঙ্ঘন করছে কি না তার প্রতি কঠোর নজরদারি করছেন বলে জানালেন নির্বাচনী কর্মকর্তা আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী। তিনি বলেন, সমিতির ইতিহাসে এবারই একমঞ্চে সম্মিলিতভাবে প্রতিদ্বন্দ্বীরা অপরাপর প্রার্থী ও ভোটারদের সামনে নিজ নিজ বক্তব্য রেখেছেন। তিনি আরো বলেন, নির্বাচনের এ সুষ্ঠু ও উৎসব মুখর পরিবেশ শেষ পর্যন্ত ধরে রাখতে সংশ্লিষ্ট সকল আইনজীবী সজাগ থাকারও অনুরোধ করা হচ্ছে।

প্যানেলভিত্তিক অন্যান্য প্রার্থীরা হচেছন, সমন্বয় পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি কামরুন নাহার, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ রফিকুল আলম, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইয়াছিন খোকন, অর্থ সম্পাদক রিক্তা বড়ুয়া, পাঠাগার সম্পাদক মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সম্পাদক জুবাইদা ছরওয়ার চৌধুরী নিপা, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক মোহাম্মদ ফয়েজ উদ্দীন চৌধুরী।

ঐক্য পরিষদের প্রার্থীরা হচ্ছেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোহাম্মদ ইছহাক, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, সহ-সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ হাসান আলী চৌধুরী, অর্থ সম্পাদক মহিউদ্দিন হক চৌধুরী জুয়েল, পাঠাগার সম্পাদক মো. আবদুল কাইয়ুম ভুঁইয়া, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সম্পাদক হাসনা হেনা, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক শহীদুল ইসলাম সুমন।
সমমনা সংসদের প্রার্থীরা হলেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী, সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. এহতেশাম পারভেজ সিদ্দিকী জুয়েল ও পাঠাগার সম্পাদক ভাস্কর রায় চৌধুরী। গণতান্ত্রিক সমিতির ব্যানারে নির্বাচন করছেন, অর্থ সম্পাদক পদে মো. মোশারেফ হোসেন।

সম্পাদকীয় পদে একমাত্র স্বতন্ত্র প্রার্থী সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে মাসুদুল আলম বাবু প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সদস্যপদে সমন্বয়ের প্রার্থীরা হচেছন, অভিজিৎ আচার্য, মো. আরিফুর জামান আরিফ, অসীম শর্মা, মুহাম্মদ বরকত উল্লাহ খান, মো. জামাল উদ্দিন চৌধুরী, খাইরুন্নিসা আখতার নিসা, এম সালাউদ্দিন মনসুর চৌধুরী রিমু, মো. মেজবাহ উদ্দিন দোয়েল, মোহাম্মদুন্নবী শিমুল ও সাহেদা বেগম।

ঐক্যের সদস্য প্রার্থীরা হলেন, আবু মুহাম্মদ ইউসুফ সোহেল, মো. আবুল মনছুর সিকদার, মো. আলাউদ্দীন আল আজাদ, মো. আাজিম উদ্দীন লাভলু, মো. এনামুল হক, মো. এরফানুর রহমান, ইমতিয়াজ আহম্মদ জিয়া, মাহমুদ-উল-আলম চৌধুরী মারুফ, মোহাম্মদ মিছাবহ উদ্দীন ও মোস্তফা কামাল।

সমমনা সংসদ থেকে সদস্য প্রার্থী আলিমুল আহসান রাসেল ও গণতান্ত্রিক সমিতির সদস্য প্রার্থী মোহাম্মদ মনির হোসেন।
আইনজীবী সমিতির অডিটরিয়ামে ভোটাররা ভোট প্রয়োগ করবেন।

মতামত...