,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রাম নগরীর ৯ সরকারি স্কুলে ৩ ভর্তি ৩০ নভেম্বর থেকে শুরু

নিউজ ডেস্ক,বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: চট্টগ্রাম নগরীর নয় সরকারি স্কুলে এবার ৩ ক্লাস্টারে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে। পঞ্চম থেকে নবম শ্রেণির ৩ হাজার ৬৩৩ আসনে আগামী ২১, ২৩ ও ২৬ ডিসেম্বর ক্লাস্টার ভিত্তিক এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নির্দেশনায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন।

 ‘ক ক্লাস্টারে’ রাখা হয়েছে চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল, বাকলিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় বালিকা (বালক শাখা), ডা. খাস্তগীর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও সিটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।

‘খ ক্লাস্টারে’ রাখা হয়েছে নাসিরাবাদ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, হাজী মুহাম্মদ মহসিন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, চট্টগ্রাম সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও বাকলিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় (বালিকা শাখা)।

‘গ ক্লাস্টার ‘ রাখা হয়েছে সরকারি মুসলিম হা্ই স্কুল ও চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়।

এবার মহানগরীর নয় সরকারি স্কুলে পঞ্চম শ্রেণিতে ১৯৬০, ষষ্ট শ্রেণিতে ৬৩৮, সপ্তম শ্রেণিতে ৮০, অষ্টম শ্রেণিতে ২০৫, নবম শ্রেণিতে ৭৫০ আসনে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এরমধ্যে চতুর্থ থেকে সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে এবং নবম শ্রেণির ক্ষেত্রে অষ্টম শ্রেণির জেএসসি/জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণার পর নবম শ্রেণির ভর্তি ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক সামসুল আরেফিন বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) দিক নির্দেশনায় মহানগরীর নয় সরকারি স্কুলে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ইতোমধ্যে নয় সরকারি স্কুলের প্রধানদের সাথে পরীক্ষার নানান বিষয় পর্যালোচনা করে তিন ক্লাস্টারে ভাগ করা হয়েছে। এডিসি শিক্ষা তা তদারকি করছে।

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, আবেদনের সময় যারা কোটায় আবেদন করবে, তাদের কোটার স্বপক্ষে অবশ্যই প্রয়োজনীয় তথ্যাদি বা কাজগপত্র উল্লেখ করতে হবে। ফলাফল প্রকাশের পরের দিন স্ব স্ব বিদ্যালয়ে কোটার স্বপক্ষে সকল কাগজপত্র প্রধান শিক্ষকের নিকট অবশ্যই দেখাতে হবে। কোটার স্বপক্ষে কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থ হলে তা বাতিল করা হবে।

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. হাবিবুর রহমান বলেন, এবার মহানগরীর নয় সরকারি স্কুলে ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতির পরিবর্তন করা হয়েছে। মহানগরীর নয় সরকারি স্কুলকে ক. খ ও গ তিনটি গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে। নয় সরকারি স্কুলের ৫ম-নবম শ্রেণির ৩ হাজার ৬৩৩ আসনে আগামী ৩০ নভেম্বর থেকে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবে। প্রতি ক্লাস্টারে অনলাইনে আবেদন করতে টেলিটকের মাধ্যমে দেড়শ টাকা ফি দিতে হবে। অর্থাৎ প্রত্যেক ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী তিন ক্লাস্টারে আবেদন করলে তিনবার ফি দিতে হবে। মোবাইল অপারেটর কোম্পানি টেলিটকের মাধ্যমে এ ফি নেওয়া হবে।

আগামী ২১, ২৩ ও ২৬ ডিসেম্বর সকাল-বিকেল দুই বেলায় ৫ম-৯ম শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে জানিয়ে মো, হাবিবুর রহমান আরও বলেন, ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা আগের পদ্ধতিতে শুধুমাত্র একটি স্কুলে আবেদন করার সুযোগ ছিল। তার এবার পরিবর্তন করা হয়েছে। সকল স্কুলকে তিন ক্লাস্টার/গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে। ছাত্ররা তিন ক্লাস্টারে এবং ছাত্রীরা দুই ক্লাস্টারে আবেদন করার সুযোগ পাবে। তবে প্রিত্যেক শিক্ষার্থী প্রতি ক্লাস্টারের যেকোন একটি বিদ্যালয়ে আবেদন করতে পারবে। ক্লাস্টারভেদে ভর্তিচ্ছু ছাত্ররা তিন ক্লাস্টারে তিনটি স্কুল এবং ভর্তিচ্ছু ছাত্রীরা দুই ক্লাস্টারে দুই স্কুলে আবেদনের সুযোগ রয়েছে। যা আগের পরীক্ষা পদ্ধতিতে তা ছিল না।

আগামী ২১ ডিসেম্বর ক গ্রুপের (সকালে ৫ম, ৭ম ও ৮ম এবং বিকেলে ৬ষ্ঠ শ্রেণির), ২৩ ডিসেম্বর খ গ্রুপের (সকালে ৫ম, ৭ম ও ৮ম এবং বিকেলে ৬ষ্ঠ শ্রেণির) ও ২৬ ডিসেম্বর গ গ্রুপের (সকালে ৫ম ও ৮ম এবং বিকেলে ৬ষ্ঠ শ্রেণির) এ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে সকাল ১০টা-১২টা এবং বিকেল ২টা-৪টা পর্যন্ত।

মহানগরীর নয় সরকারি স্কুলে এবছর পঞ্চম থেকে নবম শ্রেণিতে আসন সংখ্যা তিন হাজার ৬৩৩টি। যা গতবছর ছিল তিন হাজার ৫৫৬টি।

কোন স্কুলে কত আসন : এবার ডা. খাস্তগীর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শুধুমাত্র পঞ্চম শ্রেণির ৩২০ আসনে ছাত্রী ভর্তির সুযোগ রয়েছে।

কলেজিয়েট স্কুল এন্ড কলেজে শুধুমাত্র পঞ্চম শ্রেণির ৩২০ আসন ও নবম শ্রেণির ১৪০ আসনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।

সরকারি মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণির ১৬০ আসনে, ষষ্ট শ্রেণির ১৭৩ আসনে ও নবম শ্রেণির ১৪০ আসনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এই স্কুলে সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণিতে কোন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে না।

নাসিরাবাদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণির ১৬০ আসনে, ষষ্ট শ্রেণির ১৮০ আসনে, অষ্টম শ্রেণির ৭০ আসনে ও নবম শ্রেণির ১৫০ আসনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এই স্কুলে সপ্তম শ্রেণিতে কোন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে না।

চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণির ২৪০ আসনে, অষ্টম শ্রেণির ৮০ আসনে ও নবম শ্রেণির ৮০ আসনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এই স্কুলে ষষ্ট ও সপ্তম শ্রেণিতে কোন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে না।

চট্টগ্রাম সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণির ১৬০ আসনে, ষষ্ট শ্রেণির ১০০ আসনে ও নবম শ্রেণির ৬০ আসনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এই স্কুলে সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণিতে কোন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে না।

হাজী মুহাম্মদ মহসীন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণির ১৬০ আসনে, ষষ্ট শ্রেণির ৩০ আসনে, সপ্তম শ্রেণির ২০ আসনে ও নবম শ্রেণির ৪০ আসনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এই স্কুলে অষ্টম শ্রেণিতে কোন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে না।

বাকলিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণির মোট ২০০ (ছাত্র ১০০ ও ছাত্রী ১০০) আসনে, ষষ্ট শ্রেণির ১৫৫ (ছাত্র ১১০ ও ছাত্রী ৪৫) আসনে, সপ্তম শ্রেণির ৬০ (ছাত্র ৩০ ও ছাত্রী ৩০) আসনে, অষ্টম শ্রেণির ৫৫ (ছাত্র ৪০ ও ছাত্রী ১৫) আসনে ও নবম শ্রেণির ৮০ (ছাত্র ৪০ ও ছাত্রী ৪০) আসনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।

সিটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শুধুমাত্র পঞ্চম শ্রেণির ২৪০ আসনে ও নবম শ্রেণির ৬০ আসনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এ স্কুলে ষষ্ট, সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণিতে কোন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে না।

মতামত...