,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রাম নগরে জাতীয় শোক দিবসে ৪০ কিলোমিটার জুড়ে মানব প্রাচীর রচনা করবে চসিক

aনাছির মীর, বিডিনিউজ রিভিউজঃ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের সাথে সিটি মেয়রের বৈঠকে ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসে মানব প্রাচীর সহ নানা ধরনের কর্মসূচি গৃহিত।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসে নগর এর ৪০ কি.মি. এলাকা জুড়ে মানব প্রাচীর সহ ৫ দিনের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহে ১৫ দিন ব্যাপী কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান কার্যালয়, আঞ্চলিক কার্যালয়, ওয়ার্ড কার্যালয়, সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, স্বাস্থ্য কেন্দ্র, দাতব্য চিকিৎসালয় সহ সকল ভবনে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা ও সিটি কর্পোরেশনের পতাকা অর্ধনমিত করণ, চসিক এর সর্বস্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারী, ছাত্র-শিক্ষক সকলে কালোব্যাচ ধারন, সকাল ৭ টায় চসিক পরিচালিত সকল ফোরকানিয়া মাদ্রাসায় স্ব স্ব উদ্যোগে খতমে কোরআন, মিলাদ মাহফিল ও মোনাজাতের আয়োজন করা, সকাল ৮টা.৩০মি. নগর ভবনে স্থাপিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, সকাল ৯টা ৩০ মি. থেকে সকাল ১০ টা ৩০ মি. পর্যন্ত নগরীর শাহ আমানত ব্রিজ শহীদ বশিরুজ্জামান চৌধুরী গোল চত্বর থেকে শুরু করে বহদ্দারহাট-মুরাদপুর-জিইসি মোড়-টাইগারপাস-আগ্রাবাদ-বারিকবিল্ডিং-বন্দর-সল্টগোলা-রেলক্রসিং-বন্দরটিলা-কাটগড় পর্যন্ত এবং দেওয়ানহাট থেকে অলংকার মোড় পর্যন্ত, ষোলশহর ২ নং গেইট হয়ে নাসিরাবাদ রোড হয়ে অক্সিজেন মোড় পর্যন্ত এবং বহদ্দারহাট থেকে কালুরঘাট ব্রিজ পর্যন্ত এলাকায় খুন সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদ বিরোধী মানব প্রাচীর কর্মসূচি পালন, দুপুর ১২ টায় নগর ভবনের প্রধান কার্যালয়ের কেবি আবদুস ছত্তার মিলনায়তনে খতমে কোরআন, মিলাদ মাহফিল, এতিম সমাবেশ ও তবারুক বিতরণ কর্মসুচি গৃহিত হয়। এছাড়াও ১৬ আগষ্ট থেকে ৩১ আগষ্ট ২০১৬ খ্রি. পর্যন্ত চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি হিসেবে মিলাদ মাহফিল ও আলোচনা সভা, ১৭ আগষ্ট ২০১৬ খ্রি. রচনা প্রতিযোগিতা- অষ্টম শ্রেনী থেকে দশম শ্রেনী পর্যন্ত ৫ শত শব্দের রচনার বিষয় বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামী জীবন, একাদশ থেকে ¯œাতক শ্রেনী পর্যন্ত ১০০০ শব্দের রচনা বিষয় বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ। রচনা জমা দেয়ার সময় দুপুর ১২ টায় চসিক প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়। ১৯ আগষ্ট চতুর্থ শ্রেনী থেকে দশম শ্রেনী পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা লালদিঘীর পাড় শিক্ষক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, ২২ আগষ্ট সকাল ১০ টা ৩০ মি. নগর ভবনের কে বি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা এবং রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ।

a ১০ আগষ্ট বুধবার বিকেলে নগর ভবনের কেবি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের এক সভায় উল্লেখিত কর্মসূচি চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন শিক্ষা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন। সভায় প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা মিসেস নাজিয়া শিরিন, সমাজ কল্যান কর্মকর্তা আশেক রসুল চৌধুরী টিপু, শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সাইফুর রহমান সহ সংশ্লিষ্টরা বক্তব্য রাখেন। সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি ঘোষনা করে বলেন, ১৯৭৫ সনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে নিহত হন। এছাড়াও একই বছরে ৩ নভেম্বর জেলখানায় জাতীয় চারনেতাকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয় । এথেকে দেশে হত্যা, ক্যূ ষড়যন্ত্রের রাজনীতির মধ্য দিয়ে দেশে উগ্র জঙ্গীবাদের উত্থান ঘটানো হয়। মেয়র বলেন, বর্তমানে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ এক ভয়াবহ রূপ ধারন করেছে। এক শ্রেনীর বিকৃত মনের যুবক-যুবতীরা বিভ্রান্ত হয়ে পথভ্রষ্ট হচ্ছে। তারা জঙ্গী ও সন্ত্রাসী নাম ধারন করে পবিত্র ইসলামকে দেশ ও বিদেশে প্রশ্নবিদ্ধ করছে। জঙ্গীরা পবিত্র ইসলামের শিক্ষায় শিক্ষিত না হয়ে ইসলাম ধ্বংসের অপতৎপরতায় তারা লিপ্ত। বাংলাদেশের পথভ্রষ্ট এ সকল যুবকদের জঙ্গী ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড থেকে নিবৃত করতে এদেশের শিক্ষকদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রতি ঘন্টায় ঘন্টায় শিক্ষার্থীদের নীতি নৈতিকতায় মূল্যবোধ সম্পন্ন সু নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার জন্য প্রশিক্ষণ দিতে হবে। তিনি শিক্ষক ও অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন, সন্তানদের প্রতি সুনজর রাখতে হবে যাতে তারা বিপদগামী হতে না পারে।মেয়র সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ প্রসঙ্গে শিক্ষকদের অতন্দ্রপ্রহরীর ভূমিকা পালনের আহবান জানান।

মতামত...