,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রাম বন্দরে কোকেন মামলায় ৫ আসামী রিমান্ড

koken1নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম:: ভোজ্য তেল ঘোষণা দিয়ে আমদানী করা চট্টগ্রাম বন্দরে তরল কোকেন আটকের ঘটনায় পাঁচ আসামিকে একদিন করে রিমান্ডে নিয়েছেন তদন্ত সংস্থা র‌্যাব।

রোববার বিকালে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত মূখ্য মহানগর হাকিম নুরুল আলম লিপু রিমান্ডের আদেশ মঞ্জুর করেন। এর আগে র‍্যাবের তদন্ত কর্মকর্তা এডিশনাল এসপি মোহাম্মদ মহিউদ্দিনের ৫ আসামীর করা দুই দিনের রিমান্ডের আবেদন জানান আদালতে।

চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশের সহকারি কমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী বলেন, র‌্যাবের করা দুই দিনের রিমান্ড আবেদনের পর শুনানী শেষে আদালত প্রত্যেককে একদিন করে রিমান্ডে নেয়ার আদেশ দিয়েছেন।

রিমান্ডে নেয়া আসামিরা হলেন, আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান খান জাহান আলী লিমিটেডের মালিকানাধীন প্রাইম হ্যাচারির ব্যবস্থাপক গোলাম মোস্তফা সোহেল, কসকো শিপিং লাইনের ম্যানেজার একে আজাদ, গার্মেন্ট পণ্য রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান ম-ল গ্রুপের বাণিজ্যিক নির্বাহী আতিকুর রহমান, সিকিউরিটিজ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা মেহেদি আলম এবং আবাসন ব্যবসায়ী মোস্তফা কামাল।

উল্লেখ্য, সিএমপি পুলিশের কাছ থেকে তথ্য পেয়ে তরল কোকেন সন্দেহে গত ৬ জুন রাতে চট্টগ্রাম বন্দরে একটি কনটেইনার বন্দরে সিলগালা করে শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। ৮ জুন এটি খুলে ১০৭টি ড্রামের প্রতিটিতে ১৮৫ কেজি করে সানফ্লাওয়ার তেল পাওয়া যায়। তেলের নমুনা প্রাথমিক পরীক্ষা করে কোকেনের অস্তিত্ব পাওয়া না গেলে উন্নত ল্যাবে কেমিক্যাল পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। ২৭ জুন শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তর জানায়, কেমিক্যাল পরীক্ষায় একটি ড্রামে তরল কোকেনের অস্তিত্ব পাওয়া যায়।

২৮ জুন নগরীর বন্দর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ওসমান গনি বাদি হয়ে মাদদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯ এর ১(খ) ধারায় জাহান আলী লিমিটেডের চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ ও সোহেলকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। আদালতের নির্দেশে পরবর্তীতে চোরাচালানের ধারায় আরও একটি মামলা দায়ের হয়।

 

বিএনআর/১৬২৭/এস

মতামত...