,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রাম বন্দরে ফের নষ্ট গমের ২ জাহাজ, ফেরতের নির্দেশ

ship1নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ বন্দরে ফের নষ্ট গম নিয়ে অবস্থান করছে দুটি জাহাজ। রাশিয়া থেকে আসা ৯৯ হাজার ৩০০ মেট্রিক টন নষ্ট গমবোঝাই এ দুটি জাহাজকে গম খালাস না করে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ফেরত যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে খাদ্য অধিদপ্তর।

গমের মানে সন্তুষ্ট না হওয়ায় এসব গমের সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানকে গম ফেরত নিয়ে যেতে দাপ্তরিকভাবে চিঠি দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন খাদ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক শেখ রোকা মিয়া।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ৫১ হাজার মেট্রিক টন গম নিয়ে রাশিয়া থেকে গত সপ্তাহে চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছে ‘স্পার লিবরা’ নামের একটি জাহাজ। সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার ৪৮ হাজার ৩০০ টন গম নিয়ে ‘ইকুইনক্স ডন’ নামের অপর একটি জাহাজ চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙরে নোঙর করে। গম খালাসের অপেক্ষায় থাকা এসব জাহাজে গমের নমুনা পরীক্ষায় দেখা যায়, গমগুলো অনেকাংশে নষ্ট এবং খাওয়ার অনুপযোগী।

পরীক্ষায় গম নিম্নমানের হওয়ায় এসব গম খালাস এবং গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানায় খাদ্য অধিদপ্তর। সর্বশেষ গতকাল মঙ্গলবার গমের সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠা মেসার্স ফনিক্স কমোডিটিজ এমসিসিকে এসব গম ফেরত নিয়ে যেতে চিঠি দেয় খাদ্য অধিদপ্তর। গম ফেরত নিয়ে যাওয়াসংক্রান্ত চিঠি পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের শিপিং এজেন্ট ইউনিশিপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল হোসেন।

খাদ্য অধিদপ্তর চট্টগ্রামের চলাচল ও সংরক্ষণ নিয়ন্ত্রক জহিরুল ইসলাম  জানান, রাশিয়া থেকে নিম্নমানের ৯৯ হাজার ৩০০ টন গম নিয়ে আসা দুটি জাহাজকে ফেরত যাওয়ার জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছে। এসব নিম্নমানের গম কোনোভাবেই গ্রহণ করবে না খাদ্য অধিদপ্তর। মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে তা সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

জহিরুল ইসলাম আরো জানান, এর আগে পচা ও নিম্নমানের গম নিয়ে আসা আরো চারটি জাহাজকে গত এপ্রিল, মে ও জুন মাসে ফেরত পাঠানো হয়েছিল। এসব জাহাজে প্রায় ২ লাখ টন গম ছিল।

এদিকে মঙ্গলবার দুটি গমবোঝাই জাহাজকে ফেরত পাঠানোর চিঠি দেওয়া হলেও ৫০ হাজার টন গম নিয়ে আরো একটি জাহাজ আগামী ২০ এপ্রিল চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছাবে বলে খাদ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে।

বি এন আর/০০১৬/০০৪/০০৬/০০০৪৮৪৪/ এস

মতামত...