,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের হাতে সাংবাদিক নাজেহাল

aচবি প্রতিনিধি, বিডিনিউজ রিভিউজঃ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) রকিব কামাল নামের এক সাংবাদিককে মারধর করে গুরুত্বর আহত করেছে চবি ছাত্রলীগের আপ্যায়ন সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজানের অনুসারীরা। মারধরের শিকার রকিব কামাল বিশ^বিদ্যালয়ের যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ও দৈনিক মানবকন্ঠের বিশ^বিদ্যালয় প্রতিনিধি। বিশ^বিদ্যালয়ের কলা অনুষদ ঝুপড়িতে রবিবার দুপুর দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী শিক্ষার্থীরা জানায়, রবিবার বিশ^বিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির পূর্ব নির্ধাারিত সাধারণ সভায় যোগ দিতে গেলে পথিমধ্যে চা খাওয়ার উদ্দেশ্যে কলা অনুষদ ঝুপড়িতে যায় রকিব কামাল। এই সময় বিশ^বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের আপ্যায়ন সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান তার জুনিয়রদেরকে নির্দেশ দেন রকিবকে মারধর করার জন্য।

মিজানের নির্দেশে ইতিহাস বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের রাকিব এবং রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের একই শিক্ষাবর্ষের বন্নির নেতৃত্ত্বে আরো ১৫-২০ জন সাংবাদিক রকিবের উপর হামলা চালায়। পরে সেখানে উপস্থিত বিশ^বিদ্যালয়ের কর্মরত সাংবাদিকদের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে বিশ^বিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে পাঠনো হয়।
রকিব কামাল বলেন,“আমি সাংবাদিক সমিতির জিএম এ যাওয়ার উদ্দ্যেশে কলা ঝুপড়িতে এসেছিলাম। কিন্তু আমি যখন চা খাওয়ার জন্য দোকানে যাই তখন ছাত্রলীগের আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক মিজান তার জুনিয়রদের দেখিয়ে দেয় আমাকে মারার জন্য। আমি চা খাওয়া শুরু করলে মিজানের জুনিয়র কর্মীরা আমাকে নাম জিজ্ঞাস করেই মারধর শুরু করে। পরে আমি বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসনসহ ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দদের মৌখিক ভাবে জানিয়েছে। এখন মামলার করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ^বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি আলমগীর টিপু বলেন,“বিষয়টি আমি শুনেছি। সাংবাদিকের গায়ে হাত তোলা একটি ন্যাক্কার জনক ঘটনা। এই বিষয়ে সাংগঠনিক ভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে।”
এ প্রসঙ্গে বিশ^বিদ্যালয় প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী বলেন,“অভিযোগ পাওয়া গেলে তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।”

উল্লেখ্য, গত রমজান মাসেও অবস্থায় মিজান বিশ^বিদ্যালয় ভিত্তিক নিউজ পোর্টাল সিইউটাইমস২৪ডটকম এর সম্পাদক শরীফুল ইসলামকে মারধর করে। এই সময় রকিব এই বিতর্কিত নেতা মিজানের অপকর্ম নিয়ে সংবাদ পরিবেশন করে।

মতামত...