,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে কারা থাকছেন?

babar-faridনাছির মীর, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ চট্টগ্রাম, চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি  ঘোষনা হতে পারে  মাসেই ।  এ  কমিটি নিয়ে চলছে ব্যাপক কল্পনা – জল্পনা। দীর্ঘ ২ বছরেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি না হওয়ায় নেতা-কর্মীদের মধ্যেও হতাশা।

নগর যুবলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে  কারা আসছেন?  এ নিয়ে আগ্রহ সকলের।  কেন্দ্রীয় কমিটির শীর্ষ নেতাদের সাথে লবিং শুরু কেরছেন পদ প্রত্যাশীরা ।

দলের জন্য ত্যাগী ও যোগ্য নেতারা গুরুত্ব পূর্ণ পদে আসুক এ প্রত্যাশ সকলের।

যুবলীগের নগর কমিটির সভাপতি পদে আলোচনায় আছেন কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা ও এমইএস কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক জিএস হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর, নগর  কমিটির যুগ্ম-আহবায়ক ফরিদ মাহমুদ, দিদারুল আলম দিদার, আবদুল মান্নান ফেরদৌস প্রমুখ।  কমিটিতে নতুন নেতৃত্বও আসতে পারে বলে জানা গেছে।

 

কেন্দ্রীয় যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, যুবলীগ সন্ত্রাসীদের সাথে কোন ধরণের আপোষ নেই। এর বিরুদ্ধে সোচ্চার অবস্থানে রয়েছে নেতা-কর্মীরা এবং সন্ত্রাস, চাদাঁবাজি যুবলীগ বিশ্বাস করে না। নগর যুবলীগের সম্মেলনের মাধ্যমেই দ্রুত পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষনা করা হবে। তবে বির্তকের উর্ধ্বে রেখেই সংগঠনের গঠনতান্ত্রিকভাবেই দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের সাথে আলোচনার মাধ্যমে চট্টগ্রাম নগর যুবলীগের কমিটিসহ বিভিন্ন কমিটি গঠন করা হবে এবং যুবলীগ একটি বড় সংগঠন, এ সংগঠনকে আরো শক্তিশালী করতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাচ্ছি।
যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা ও এমইএস কলেজের সাবেক জিএস হেলাল আকবর বাবর বলেন, প্রকৃত নেতাদের তৃনমূল পর্যায়ে সাংগঠনিক অবস্থান রয়েছে। তারাই দলের বিভিন্ন কর্মসূচী ও কর্মকান্ডে এগিয়ে যান।

তিনি বলেন,  সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের মাধ্যমে  একটি মহল দলকে বির্তকিত করতে কাজ করছেন। তবে যুবলীগসহ দলকে আরো শক্তিশালী করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার অনুরোধ করেন তিনি।
নগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ উপ-কমিটির নেতা এম আর আজিম সাংবাদিকদের বলেন, রাজনীতি করতে গিয়ে হেলাল আকবর বাবরসহ অনেকেই জেল-জুলুম ও পরিবারের উপরও নির্যাতন নেমে এসেছিল।  এমন ত্যাগী ও যোগ্য নেতাদেরকে যুবলীগের দায়িত্ব দেয়া হলে যুবলীগকে আরো ঐক্যবদ্ধভাবেই এগিয়ে নেয়া যাবে বলে আমি মনে করি।

 

জানা যায়, দীর্ঘ ৯ বছর পর আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে যেভাবে সক্রিয় থাকার কথা ছিল পূর্ণাঙ্গ কমিটি না থাকায় তেমন চাঙ্গাভাব নেই নেতা-কর্মীদের  ।

কোন প্রকার দায়সারাভাবে ওয়ার্ড ও থানা কমিটির কার্যক্রম চালানো হচ্ছে।

আগামীতে যুবলীগের কমিটির নেতৃত্বে কারা আসছেন এ নিয়ে গুঞ্জন সৃষ্টি হয়েছে চট্টগ্রামের নেতা-কর্মীদের মাঝে।

গত ২০১৩ সালের ৯ জুলাই মহিউদ্দিন বাচ্চুকে আহবায়ক ও দেলোয়ার হোসেন খোকা, ফরিদ মাহমুদ, দিদারুল আলম, মাহবুবুল হক সুমন যুগ্ম-আহবায়ক করে ১০১ সদস্যের একটি আহবায়ক কমিটি গঠন করে কেন্দ্রীয় কমিটি। এটি তিন মাসের মধ্যে ওয়ার্ড ও থানা কমিটি গঠন করে সম্মেলন করার কথা ছিল।

চট্টগ্রাম নগর যুবলীগের আহবায়ক কমিটি ২ বছর ৬ মাস পার করেছে ।

এখন দেখার বিষয় ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের অঙ্গ সংগঠন যুবলিগের চট্টগ্রাম মহা নগর কমিটি তে কারা স্থান পাচ্ছেন ।

 

বি এন আর/০০১৬০০৩০০১৪/০০০২২৮/পি

 

মতামত...