,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার কাস্টমস্ আইনের ২৯ ধারায় যুগোপযোগী সংশোধন চায়

nbr cনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাজট্রিজ কাস্টমস্ আইনের ২৯ ধারায় যুগোপযোগী সংশোধন চায়। এ জন্য চেম্বারের পক্ষে সহ সভাপতি এ.এম. মাহবুব চৌধুরী  মঙ্গলবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবর এক আবেদন করেছেন। ওই আবেদনে তিনি বলেন,বর্তমানে কাস্টম ষ্টেসন সমূহে দৈনিক প্রায় ৫ হাজারের অধিক বিল অব এক্সপোর্ট হয়। যাহা টাইপ করেন ঈ্ঋ অফিসের কর্মচারীগন। যেহেতু রপ্তানীকারকের নিয়ন্ত্রন বহির্ভূত ভিন্ন bnr ad 250x70 1অফিসের কর্মচারী কতৃক ইহা টাইপ হয় , তাই কোথাও কোন ভুল হতেই পারে। অন্যদিকে কাস্টম কর্মকর্তার স্বল্পতার কারনে একজন রেভিনিউ অফিসারকে অনেক বেশি রপ্তানী ডকুমেন্ট এসেসমেন্ট করতে হয় বিধায় তারাও ভুল ভাবে ইনভয়েস না মিলিয়ে রপ্তানীর বিল অব এক্সপোর্ট দস্তখত করে এসেসমেন্ট করেন। বাস্তবে যাহা বিল অফ এক্সপোর্ট টাইপের ভুল ছাড়াও কাস্টম অফিসার কর্তৃক ইনভয়েসের ভিন্নতর বিল অফ এক্সপোর্ট ভুলভাবে দস্তখত করে এসেসমেন্ট করেন।অথচ ২৯ ধারার কারনে এ ভুল আর সংশোধন হয় না।

কিন্তু অন্যের ভুলের জন্য রপ্তানীকারককে যে ভাবে মাশুল বহন করতে হয় যথা: রপ্তানীকারক জিএসপি নিতে নানা ঝামেলার পতিত হয়, বিলম্বে বায়ারের নিকট ডকুমেন্ট প্রেরন, বিদেশে পোর্টের ডেমারেজ ও জিএসপি বিহীন ডকুমেন্টের জন্য বিদেশে ডিউটি প্রদান সহ ক্রেতাকে ডিসকাউন্ট দিতে বাধ্য হয়।এতে রপ্তানীকারক সহ দেশের বৈদেশিক মুদ্রার ক্ষতি হয়।

আমাদের জানা মতে প্রতিনিয়ত অনেক রপ্তানীকারক এরূপ ভুলের শিকার হয়ে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। তাই আমরা মনে করি আধুনিক প্রযুক্তির কম্পিউটার টাইপিংয়ের যথাযথ ব্যবহারিক সুফল প্রাপ্তির লক্ষ্যে এরূপ ভুল সংশোধনে রপ্তানীর সময়ের কাস্টম দস্তখতকৃত সঠিক ইনভয়েস/কাস্টম দস্তখতকৃত প্যাকিং লিস্ট মতে ২০০০ টাকা জরিমানা সহ সংশোধন করার ব্যবস্থা করলে বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় হবে, রপ্তানীকারক ক্ষতি থেকে বাঁচবে এবং রাজস্ব আহরন বৃদ্ধি পাবে।

তাই যেহেতু কাস্টম দস্তখতকৃত ইনভয়েস  থাকে, সুতরাং ম্যানুয়েল পদ্ধতির টাইপিং সময়ের কাস্টম এ্যাক্টের ২৯ ধারায় বর্ণিত মতে সংশোধনী করলে ইহা যুগোপযোগী সংশোধন হিসাবে অবদান রাখবে।

মতামত...