,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চট্টগ্রাম রিহ্যাব ফেয়ারে ৪শ’ কোটি টাকার ফ্ল্যাট ও প্লট বিক্রি

aনিজস্ব প্রতিবেদক ,বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম,চট্টগ্রাম : রিহ্যাব চট্টগ্রাম ফেয়ারে ক্রেতা দর্শনার্থীদের ভিড়ে উৎসব মুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। শেষ মুহূর্তে দর্শনার্থীদের অনুরোধে মেলার সময় এক ঘন্টা বাড়ানো হয়।  রবিবার শেষ দিনে রাত ৯টার পরিবর্তে মেলা শেষ হয় রাত ১০টায়।  চার দিনে ২০ হাজার ক্রেতা দর্শনার্থী মেলা  পরিদর্শন করেছেন। মেলায় প্রায় ৪শ’ কোটি টাকার ফ্ল্যাট ও প্লট বিক্রি হয়েছে বলে রিহ্যাব সূত্রে জানা গেছে। মেলার আয়োজন নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন আয়োজক,অংশগ্রহণকারি প্রতিষ্ঠান ও ক্রেতা-দর্শনার্থীরা।

মেলায় চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও র‍্যাফেল ড্রর  বিজয়ীদের মাঝে ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়। হোটেল রেডিসন ব্লু’র মোহনা হলে আয়োজিত শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে দুটি শাখায় প্রথম থেকে দশম স্থান অধিকারীদের মধ্যে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন এফবিসিসিআই এর প্রেসিডেন্ট ও চিটাগাং চেম্বারের প্রেসিডেন্ট মাহবুবুল আলম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রিহ্যাব- এর ভাইস প্রেসিডেন্ট ইঞ্জিনিয়ার এস.এম আবু সুফিয়ান। বিশেষ অতিথি ছিলেন র‌্যাডিসন ব্লু জেনারেল ম্যানেজার জিয়ের শিকো। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন রিহ্যাব পরিচালক ইফতেখার হোসেন, আব্দুল কাদের জিলানীসহ ফেয়ারের ইভেন্ট স্পন্সর জিপিএইচ ইস্পাত, আরএসআরএম, এপিক হেলথ্‌ কেয়ার লি:, প্রিমিয়ার সিমেন্ট, কনফিডেন্স সিমেন্ট লি: এর কর্মকর্তারা।

সরজমিনে দেখা গেছে, ফেয়ারের শেষ দিনেও ছিল ক্রেতা দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভীড়। মেলায় ক্রেতা সাধারণ তাদের পছন্দের ফ্ল্যাট/প্লট বুকিং দিয়েছেন। মেলার উল্লেখযোগ্য দিক হলো একই ছাদের নিচে আবাসন প্রতিষ্ঠান, ব্যাংক লোন সুবিধা এবং বিল্ডিং ম্যাটেরিয়ালস পছন্দের সুযোগ। মেলায় শুধুমাত্র দর্শকদের ভিড়ই হয়নি, বেচা-বিক্রিও খুবই ভাল হয়েছে। মেলায় যে সকল প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করেছে তারা সকলেই তাদের পণ্য আশাতীতভাবে বিক্রি করেছেন। এজন্য মেলা আয়োজক কমিটিসহ সংশ্লিষ্ট সকলে খুবই সন্তুষ্ট। এছাড়া অনেক ক্রেতা কমিটমেন্ট করেছেন ফেয়ারের পরে তাদের পছন্দের ফ্ল্যাট/প্লট বুকিং দিবেন। শেষ দিনে ক্রেতা দর্শনার্থীদের সন্তোষজনক উপস্থিতির কারণে মেলার সময় রাত ৯টা থেকে এক ঘন্টা বাড়িয়ে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা রাখা হয়েছে। মেলায় আগত দর্শনার্থী সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা সৈয়দ নাসিম আজাদীকে বলেন, মেলার শেষদিন হওয়ায় আজ না এসে পারলাম না। প্রথম দিন একবার এসেছিলাম। প্রতিষ্ঠান গুলোর প্রকল্প সম্পর্কে জেনে গিয়েছিলাম। আজ একটা বুকিং দিব বলে এসেছি।

রিহ্যাব চট্টগ্রামের প্রেসিডেন্ট আবু সুফিয়ান বলেন, মেলায় ৪ দিনে ২০ হাজারের বেশি ক্রেতা দর্শনার্থী মেলা প্রাঙ্গণ পরিদর্শন করেছেন। এ বারের মেলায় প্রায় ৪শ’ কোটি টাকার ফ্ল্যাট ও প্লট বিক্রি হয়েছে। ক্রেতাদের এত ভালো সাড়া পেয়ে আমরা খুশি। মূলত চার কারণে ক্রেতারা এই খাতে বিনিয়োগে আগ্রহ দেখাচ্ছে। সেগুলো হলো- স্থিতিশীল রাজনৈতিক অবস্থা, ব্যাংক ঋণের সুদ এক অংকে নেমে আসা, সরকারের ইতিবাচক মনোভাব এবং প্রবাসিদের ঋণ সুবিধার আওতায় আনা।

রিহ্যাব পরিচালক ইফতেখার হোসেন  বলেন, আবাসন খাত ধীরে ধীরে আগের চেয়ে ভালো অবস্থানের দিকে যাচ্ছে। ক্রেতারা আস্থা রাখছেন। মেলার শেষ দিনেও বিপুল সংখ্যক ক্রেতা দর্শনার্থী মেলায় এসেছেন। যা খুবই ইতিবাচক।

রিহ্যাব পরিচালক আব্দুল কাদের জিলানী বলেন, মেলা সফল হয়েছে। বিনিয়োগের সেরা সময় এখন। ফ্ল্যাটের দাম এখন অনেক কম। বিপুল সংখ্যক ফ্ল্যাট বুকিং হয়েছে। মেলা সম্পর্কে মহানগর প্রপার্টি এর বিপণন ব্যবস্থাপক মো. মহিউদ্দিন আজাদীকে বলেন, মেলায় বিপুল সংখ্যক ক্রেতা ও দর্শনার্থী এসেছেন। ফ্ল্যাট নিয়ে তাদের আগ্রহ দেখে আমরা খুুশি। অনেকেই জানিয়েছেন তারা কিনতে আগ্রহী। কিছু ফ্ল্যাট বুকিং হয়েছে। ক্রেতাদের ইতিবাচক সাড়া বলে দিচ্ছে আবাসন খাত ঘুরে দাড়াবে। বর্তমানে যে সব প্রতিষ্ঠান বাজারে আছে তাদের সেরা প্রোডাক্ট এই মেলায় এসেছে। তাই ক্রেতাদের বেছে নিতেও সুবিধা হচ্ছে। গত বৃহস্পতিবার নবমবারের মতো আয়োজিত রিহ্যাব ফেয়ার চট্টগ্রাম ২০১৬ শুরু হয়। চারদিনের মেলায় ৫৫টি ডেভলপার প্রতিষ্ঠানসহ আর্থিক ও ভবন নিমার্ণ সামগ্রীর প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়।

 

 

 

বি এন আর/০০১৬০০২০২৯/০০০২০৯ /এস

 

মতামত...