,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

চিকিৎসা নিতে দিল্লি গেলেন সালাহউদ্দিন

Salah_Uddinনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ চট্টগ্রাম, ভারতের মেঘালয় রাজ্যের সিলং শহর ছেড়ে চিকিৎসা নিতে দিল্লিতে  বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমদ। ১০ মার্চ সিলং থেকে গোয়াহাটি হয়ে বিমান যোগে তিনি দিল্লি পৌঁছান। তিনি সেখানে হরিয়ানা মেদান্ত হাসপাতালে কিডনি রোগের চিকিৎসা নেবেন। তার ঘনিষ্ঠ সূত্র খবরটি নিশ্চিত করেছে।

২০১৫ সালে ১০ মার্চ ঢাকার উত্তরার একটি বাসা থেকে অপহৃত হবার পর ১২ এপ্রিল ভারতের মেঘালয় রাজ্যের রাজধানী সিলং শহরের গলফ কোর্স মাঠে তার সন্ধান মেলে। পরে সেখানকার পুলিশ তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মানসিক হাসপাতাল মিমহানস ও ১ দিন পর সিভিল হাসপাতালে ভর্তি করে। তার সন্ধানের খবর বাংলাদেশের মিডিয়ায় তোলপাড় হলে তাকে কঠোর পুলিশি প্রহরায় নিগ্রিমস হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। এসময় তার বিরুদ্ধে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে একটি মামলা করে পুলিশ। পরে ওই মামলায় জামিন নিয়ে বিষ্ণপুর সানরাইজ গেস্ট নামের একটি অতিথিশালায় ভাড়ায় বসবাস শুরু করে চিকিৎসা নেয়ার পাশাপাশি আইনি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি।

সালাহ উদ্দিন আহমদের ভারতীয় আইনজীবী এডভোকেট এসপি মহান্ত জানান, সালাহউদ্দিন আহমদ কিডনি রোগে আক্রান্ত হওয়ায় নিগ্রিমস হাসপাতালের গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সুপারিশক্রমে মহামান্য আদালত তাকে গত ৩ মার্চ ভারতের অন্যকোন হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার অনুমতি দেন।

জানা গেছে,  সালাহ উদ্দিন আহমদ জানান, তিনি হরিয়ানার মেদান্ত হাসপাতালে কিডনি রোগের চিকিৎসা নেবেন। তার শারীরিক অবস্থা তেমন ভাল নয় উল্লেখ করে তিনি দেশবাসীর নিকট দোয়া কামনা করেন। চিকিৎসা শেষে তিনি সিলং ফিরে আবারো আইনি লড়াই চালিয়ে যাবেন বলে জানান।

দেশে ২০১৫ সালের ১০ মার্চ তিনি গুম হন আর ২০১৬ সালের ঠিক ওই দিনটিকেই দিল্লী সফরের জন্য বেছে নেন তা জানান তার ঘনিষ্ঠজনরা। সিলং ছাড়ার প্রাক্কালে সেখানকার তার পরিচিতজন ও দেশের বেশ কিছু বিএনপি নেতা-কর্মী তাকে বিদায় জানিয়েছেন বলে সূত্র জানায়।

 

বি এন আর/০০১৬০০৩০০১০/০০০১৭০/পি

মতামত...