,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

জঙ্গিবাদ জেহাদ নয়ঃ হেফাজত

hafajat logoনিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও গুপ্তহত্যার প্রতিবাদ এবং শিক্ষার সর্বস্তরে ইসলামি শিক্ষা চালুর দাবিতে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ।

শুক্রবার (০৫ আগস্ট) জুমার নামাজ শেষে আন্দরকিল্লা শাহি জামে মসজিদ গেটে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন মহাসচিব আল্লামা হাফেজ জুনাইদ বাবুনগরী। তিনি বলেন, সন্ত্রাস জেহাদ নয়, জেহাদ সন্ত্রাস নয়। সন্ত্রাস দমন করতে আল্লাহর রাসূল জেহাদ করেছেন। ইসলাম সন্ত্রাসবাদ সমর্থন করে না। সন্ত্রাস, গুম, খুন, দুর্নীতি ইসলামে নেই। যারা সন্ত্রাসবাদী তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। একই সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ দমনের নামে নিরীহ মানুষকে হয়রানিও ইসলামে নাই।

তিনি বলেন, খুতবার উৎস কোরআন হাদিস। তাই খুতবা নিয়ন্ত্রণ করলে ইসলাম নিয়ন্ত্রণ করা হয়। তৌহিদি জনতা বুকের তাজা রক্ত দিয়ে খুতবা নিয়ন্ত্রণ প্রতিহত করবে।

প্রধানমন্ত্রীর ধর্মীয় শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দেওয়াকে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, নাস্তিক শিক্ষামন্ত্রী দিয়ে এ কাজটি সফল হবে না। নতুন শিক্ষানীতি বাতিল করতে হবে।

বক্তব্য দেন যুগ্মমহাসচিব মাওলানা রুহী, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী, দক্ষিণ জেলা সভাপতি সরোয়ার কামাল আজিজি, বগুড়া জেলা সম্পাদক সামসুল হক,  মাওলানা আ ন ম আহমদুল্লাহ, কুতুব উদ্দিন, আবদুল্লাহ খান, রাকিবুল আলম, আনোয়ার হোছেন রাব্বানী, মাওলানা ইদ্রিস, মো. ওসমান, ইকবাল জলিল প্রমুখ।

আজিজুল হক ইসলামাবাদী বলেন, মন্ত্রী বুদ্ধিজীবী বলেছিল কওমি মাদ্রাসা জঙ্গির প্রজনন ক্ষেত্র। শোলাকিয়া ও গুলশানের ঘটনায় প্রমাণিত হয়েছে কওমি মাদ্রাসায় জড়িত। সারাবিশ্বে ইহুদিরাই সন্ত্রাসী জঙ্গি হামলা করছে।

তেতুল হুজুর বলে বেয়াদবি করেছেন মন্ত্রী ইনু।
তাকে মন্ত্রিসভায় রেখে শান্তি আনা সম্ভব নয়। নাস্তিক শিক্ষামন্ত্রী দিয়ে ধর্মীয় শিক্ষা বাস্তবায়ন হবে না।

মাওলানা রুহী প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বলেন, বাংলাদেশের বড় জঙ্গিবাদ তথ্যমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী, বিমানমন্ত্রী। জুমার খুতবা নিয়ন্ত্রণ করে জঙ্গিবাদ রুখতে পারবেন না। দাড়ি টুপি সন্ত্রাসের চিহ্ন নয়।

বক্তারা বলেন, খুতবা নিয়ন্ত্রণ করে জঙ্গি দমন করা যাবে না। জঙ্গি দমন করতে হবে আদর্শ দিয়ে। প্রমাণিত হয়েছে, কওমি মাদ্রাসা থেকে জঙ্গি বের হয় না। এদেশে আমরা জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের রাজত্ব কায়েম করতে দেবো না। রক্ত দিয়ে প্রতিবাদ জানাবো।

বাম ধারার রাজনৈতিক দলের দিকে ইংগিত করে সমাবেশে বলা হয়, জঙ্গিবাদের সঙ্গে কারা জড়িত, কারা ইন্ধন দিচ্ছে তা তদন্ত করা উচিত।

মিছিলে ইসলামবিরোধী শিক্ষানীতি বাতিল কর করতে হবে স্লোগান দেন। মিছিলটি মোমিন রোড হয়ে প্রসক্লাব গিয়ে শেষ হয়।

 

মতামত...